ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

৩২০০ বছর আগের পনির

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১১, ১৮ আগস্ট ২০১৮

পৃথিবীর সবচেয়ে পুরোনো পনিরের সন্ধান মিলেছে। মিসরের ৩২০০ বছরের পুরোনো একটি সমাধিস্থল থেকে বয়ামে মোড়ানো নিরেট পনির পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে এটি গরু, উট কিংবা ছাগলের দুধ দিয়ে তৈরি।

ইতালির কাতানিয়া ইউনিভার্সিটির রসায়ন বিজ্ঞানী এনরিকো গ্রেকো জানাচ্ছেন, খ্রিস্টপূর্ব ১৩০০ অব্দে মিসরের মেমফিসের মেয়র ফামেসের সমাধিস্থলের মধ্যে এ পনির ছিল।

আসলে এ সমাধিস্থল সর্বপ্রথম খনন করা হয় ১৮৮৫ সালে। কিন্তু তা বালুতে ঢেকে যায় আবার। পরে আবারও ২০১০ সালে একে খুঁজে বের করা হয়। তার কয়েক বছর বাদেই পুরাতত্ত্ববিদরা ওই সাইটে ভাঙা তৈজসপত্র দেখতে পান।

এর মধ্যে একটি বয়ামে সাদাটে জিনিস পেয়েছিলেন। আরও ছিল কাপড়। সেই কাপড়ে মোড়ানো ছিল বয়াম। বয়ামের সাদাটে পদার্থ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। লিকুইড ক্রোমাটোগ্রাফি এবং ম্যাস স্পেক্টোমেট্রি করা হয়।

দেখা যায়, সেটি দুগ্ধজাত খাবার। এটা বানানো হয়েছিল গরু, ছাগল কিংবা ভেড়ার দুধ দিয়ে। আরও জানা যায়, ওটা তরল নয় বরং কিছু শক্ত পদার্থ ছিল।

যুক্তি ও পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায়, সেটি নিরেট পনিরের টুকরা। এর মধ্যে থাকা অন্য পেপটাইডের নমুনা পরখ করে আরও জানা গেছে, দুধে প্রয়োগ করা হয়েছিল ব্রুসেলা মেলিটেনসিস।

 

এটা এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া যার কারণে ব্রুসেলোসিস হয়। অ্যানালিটিক্যাল কেমিস্ট্রি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। গবেষণায় জানা যায়, ওই সময় এক প্রাণঘাতী রোগ প্রাণীদের থেকে ছড়িয়ে পড়ে মানুষের মাঝে। এটা ঘটেছিল অনিরাপদ দুগ্ধজাত খাবার খেয়ে।

সূত্র : হুরিয়াত ডেইলি।

/ এআর /


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি