ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১২:১৬:৩০

Ekushey Television Ltd.

একা হেঁটে কী বোঝাতে চাইলেন মোদি?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১৩ পিএম, ১৮ আগস্ট ২০১৮ শনিবার

কামানবাহী শকট মূল ফটক পেরোতেই হঠাৎ তার পিছনে দাঁড়িয়ে পড়লেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশে অমিত শাহ।

ভিড় তখন উপচে পড়ছে অটলবিহারী বাজপেয়ীকে শেষবার ছোঁয়ার জন্য। কিন্তু মোদি আর বিজেপি সভাপতি যে গাড়ির পিছনে হাঁটছেন! ভিড় সরাতে নাজেহাল এসপিজি। বিজেপির ঝাঁ চকচকে নতুন দফতর থেকে রাষ্ট্রীয় স্মৃতিস্থল পর্যন্ত শেষযাত্রা বাজপেয়ীর। নিজেকে বাজপেয়ীর উত্তরসূরি প্রমাণ করতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন মোদি। তারই অঙ্গ হিসেবে যেন বিজেপি দফতরের দরজা পেরোতেই বাজপেয়ীর কামানবাহী শকটের পিছনে হাঁটতে শুরু করলেন মোদি-শাহ। মোদি বোঝাতে চাইলেন, তিনিই উত্তরসূরি, অমিত তার সেনাপতি।

হাসপাতাল থেকে বাজপেয়ীর বাড়ি- গত দু’দিন ধরে সর্বত্র ছোটাছুটি করেছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। একাধিক মুখ্যমন্ত্রী, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারাও রাত জেগেছেন। তারা কোথায়? কয়েক পা হেঁটেই মোদি-শাহ বোধহয় বুঝতে পারলেন, ব্যাপারটা বেমানান হচ্ছে। একটু থমকে গিয়ে ভিড়ের মধ্যে হাতের কাছে যাঁকে যাঁকে দেখতে পেলেন, ডেকে নিলেন। শিবরাজ সিংহ চৌহান, দেবেন্দ্র ফডণবীস, অনুরাগ ঠাকুরের মতো কয়েকজন এলেন সে বলয়ে।

তার পরে প্রায় সাড়ে ছয় কিলোমিটার পথ বাজপেয়ীর শকটের পিছনে হাঁটলেন মোদি। বাকিদের, এমনকি অমিত শাহকেও পিছনে ফেলে একাই সবার আগে। টিভিতে এ ছবি দেখে কংগ্রেসের এক নেতা বললেন, ‘বাজপেয়ী হতে চাইছেন মোদি। কিন্তু বাজপেয়ী সবাইকে নিয়ে চলতেন। দেখুন, এখানেও বাজপেয়ী হতে গিয়ে মোদি সেই মোদিতেই থেকে গেলেন! বাজপেয়ীর যারা কাছের লোক ছিলেন, অন্তত তাদের তো সঙ্গে নিতে পারতেন!’

ক্ষমতায় এসেই যে বাজপেয়ীর ছবি মুছে সর্বত্র নিজের ছবিতে ছয়লাপ করেছেন, আজ তার মৃত্যুর পরে জনসমুদ্রে নিজেকে ভাসাতে চাইলেন মোদি। অন্ত্যেষ্টির পরে টুইট করে হাঁটার ছবিও দিলেন। সঙ্গে লেখা, ‘দেশের সব প্রান্তের, সমাজের সব অংশের মানুষ এসেছে অসামান্য সেই ব্যক্তিকে শ্রদ্ধা জানাতে। যিনি দেশের প্রতি অসামান্য অবদান রেখেছেন। অটলজি, আপনি প্রতিটি ভারতীয়ের হৃদয়ে থাকবেন।’ সন্ধ্যা থেকে বিজেপিও সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদির জয়ধ্বনি তুলল- এত গরমেও প্রধানমন্ত্রী কেমন হেঁটেছেন দেখুন।

গুজরাট দাঙ্গার পরে বাজপেয়ী মোদিকে ‘রাজধর্ম’ পালনের কথা মনে করিয়ে দিয়েছিলেন। সেই মোদি এখন বাজপেয়ীকে ‘পিতা’ বলে সম্বোধন করার পাশাপাশি যেভাবে সব আলো কেড়ে নিতে মরিয়া, তাতে বিজেপির অনেকে অসন্তুষ্ট। এক মন্ত্রীর গলায় স্পষ্ট হতাশা, ‘সবই তার সিদ্ধান্ত। আমাদের আর কী?’

অটল হতে গিয়ে মোদি ভুললেন অটলকেই? নিজের দলেই ‘আমরা-ওরা’ বিভাজন করে বসলেন?

সূত্র: আনন্দবাজার

একে//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি