ঢাকা, সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৮

বিট লবন কেন খাবেন?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৪২, ৬ অক্টোবর ২০২১

বিশেষ কোনও খাবার খেলে তার সঙ্গে হয়তো কালে-ভদ্রে বিট লবন খান, অথচ প্রতিদিনই আপনার খাবারে ব্যবহার করছেন সাদা লবন। বিট লবনের উপকারীতা জানলে ঠিক উল্টোটাই করতেন অনেকে। 

বিট লবনের উপকারিতা সম্পর্কে আমাদের খুব একটা স্বচ্ছ্ব ধারণা নেই। তাই সচেতনভাবে বিট লবন খাইনা আমরা অনেকেই। কিন্তু শারীরিক অনেক সমস্যা ও রোগ থেকে সহজেই মুক্তি দিতে পারে এই বিট লবন।

চলুন জেনে নিই বিট লবনের উপকারিতা:

ধরুন আপনার বদহজমের সমস্যা হয়েছে, একটু বমিভাবও দেখা দিয়েছে। নিমেষেই এই সমস্যার সমাধান করতে পারে বিট লবন। কারণ, এই লবন হজমশক্তি বাড়ায়।

আপনি কি ওজন কমানোর চেষ্টা করছেন? তাহলে নিয়মিত খান বিট লবন। এতে ওজন কমবে দ্রুত। কারণ বিট লবন শরীরের কোষগুলোতে ঠিক পরিমাণে পুষ্টি সরবরাহ করে, ফলে মেদ থাকে নিয়ন্ত্রণে।

বিট লবনে যে সব খনিজ থাকে, তাতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান। ফলে এটি নিয়মিত খেলে শরীরে ব্যাকটিরিয়াজাত সংক্রমণের আশঙ্কা কমে।

আপনি কি একটুতেই কাহিল হয়ে পড়েন? শারীরিক শক্তির অভাব মেটাতে পারে বিট লবন। এতে সোডিয়াম বেশি থাকায় সহজেই তরতাজা হয়ে ওঠে শরীর। 

হাড়ের ক্ষয় রোধ করতেও কাজ করে বিট লবন। পুষ্টি উপাদান ও খনিজের পরিমাণ বেশি হওয়ায় হাড় মজবুত করে এটি। 

বিট লবন খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। ফলে ডায়াবেটিসের সমস্যায় যারা ভুগছেন , তারা সাদা লবনের বদলে বিট লবন খেতে পারেন। 

যেভাবে খাবেন বিট লবন:

ঘুম থেকে উঠে সকাল এক গ্লাস পানি গরম করে তাতে বিট লবন মিশিয়ে খেতে পারেন। দৈনন্দিন খাদ্য তালিকাতেও সাদা লবনের পরিবর্তে এই লবন ব্যবহার করতে পারেন। 

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা
এমএম//এসবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি