ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ২০:১৯:২৭

‘ড. কামাল বর্ষাকালের কোলা ব্যাঙ’

‘ড. কামাল বর্ষাকালের কোলা ব্যাঙ’

গণফোরাম, নাগরিক ঐক্য ও জাসদের সঙ্গে বিএনপির নির্বাচনী ঐক্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ড. কামাল হোসেন বর্ষা কালের কোলা ব্যাঙ। আওয়াজ বড় কিন্তু কিছু করে দেখানোর ক্ষমতা রাখে না। আজ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত ‘ড. কামাল গংদের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র প্রতিহত’ শীর্ষক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি ইসরায়েলের পাল্লায় পড়েছে এমন মন্তব্য করে হাছান মাহমুদ বলেন, কামাল হোসেনের স্ত্রী পাকিস্তানি ও তার মেয়ের জামাই ইসরায়েলের ইহুদি। আর বিএনপি এখন ইহুদীর পাল্লায় পড়েছে। আগামী নির্বাচনে ভরাডুবি জেনেই এই ষড়যন্ত্রে তারা লিপ্ত হয়েছে। আওয়ামী লীগের এই মুখপাত্র বলেন, বিএনপির রাজনীতি এখন জিয়া পরিবারের হাতে নাই। ফখরুল ও মওদুদ মিলে কামাল হোসেনের পক্ষ নিয়ে খালেদা জিয়াকে মাইনাস করে দিয়েছে। শেখ হাসিনাকে মাইনাস করতে ড. কামাল হোসেন ব্যর্থ হলেও খালেদা জিয়াকে মাইনাস করতে তিনি সফল হয়েছেন। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-জামায়াত আবার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আর সেজন্যই তারা ড. কামাল হোসেনসহ মান্নাদের ভাড়া করে ঐক্য করেছে। / এআর /
ঝোপঝাড়ে দেখা যাচ্ছে রক্তাক্ত লাশ: রিজভী

নির্বাচন সামনে রেখে তরুণ-যুব সমাজকে ভয় পাইয়ে দেয়ার জন্যই দেশজুড়ে আবারও গুপ্তহত্যা শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সোমবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতা এসব কথা বলেন। রুহুল কবির রিজভী বলেন, গতকালও নারায়ণগঞ্জে সড়কের পাশে গুলিবিদ্ধ চার যুবক ও উত্তরায় দিয়াবাড়ীর কাশবনে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার হয়েছে। এ ছাড়া সারা দেশে এখন আবারও সড়কের পাশে, নদীর ধারে, ঝোপঝাড়ে পড়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে যুবকদের রক্তাক্ত লাশ। এর সঙ্গে বিচারবহির্ভূত হত্যা তো প্রতিদিন চলছেই। তিনি আরো বলেছেন, ‘সারা দেশে গুপ্তহত্যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দেওয়া হয়েছে ইনডেমনিটি। কারণ একটাই, একতরফাভাবে নির্বাচন করতে তরুণ-যুবকদের কোনো যেন প্রতিরোধ না হয়। অবৈধ সরকার যাদের ক্ষমতার প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করবে, তাদেরই লাশ ধানক্ষেত, খালবিলে পড়ে থাকবে।’ আরকে//

সংসদ বহাল রেখেই নির্বাচন: তোফায়েল

সংসদ বহাল রেখেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ। আজ সোমবার সচিবালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেনস ব্লুম বার্নিকাটের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি। তোফায়েল আহমেদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। সংসদ বহাল রেখেই এই সংসদের অধীনেই নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে জানিয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে। সবাইকে নিয়েই নির্বাচন করতে চায় সরকার। কোনো দল যদি না আসে সে দায়িত্ব তাঁদের। সরকার এই দায় বহন করবে না।    বৈঠকে বার্নিকাট আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, বাংলাদেশে একটি অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে, যুক্তরাষ্ট্রে এমনটিই আশা করে। / এআর /

আজ শপথ নেবেন বিসিসির মেয়র

বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ ও কাউন্সিলররা আজ সোমবার রাজধানীর গণভবনে শপথ নেবেন। আগামীকাল মঙ্গলবার নগর ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তারা। নগর ভবনে তাদের স্বাগত জানাতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি।প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা বিসিসির সচিব মো. ইসমাইল জানান, আজ সকাল সাড়ে ১০টায় মেয়র সাদিক আবদুল্লাহকে শপথ পাঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদেরও শপথ অনুষ্ঠিত হবে। বিসিসির ৫ জন কর্মকর্তা এতে উপস্থিত থাকবেন।সাদিক আবদুল্লাহ জানান, শপথ পাঠ শেষে কাউন্সিলরদের নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করবেন তিনি। সেখান থেকে সড়কপথে বরিশাল যাবেন। কাল মঙ্গলবার দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তিনি।নতুন পরিষদকে স্বাগত জানাতে নগর ভবনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন। অপরদিকে শপথ শেষে নবনির্বাচিত মেয়রের আগমন উপলক্ষে নগরীর প্রবেশ সড়কগুলোতে নির্মাণ করা হচ্ছে একাধিক তোরণ। স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে এসব তোরণ নির্মাণ হচ্ছে।প্রসঙ্গত, গত ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত বিসিসির নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। বিসিসির বর্তমান পরিষদের মেয়াদ শেষ হবে ২৩ অক্টোবর।এসএ/

ড. কামাল হোসেনও কালো টাকা সাদা করেছিলেন: ড. হাছান মাহমুদ  

বেগম খালেদা জিয়ার মতো ড. কামাল হোসেনও কালো টাকা সাদা করেছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং দলের অন্যতম মুখপাত্র ড. হাছান মাহমুদ এমপি।   রোববার (২১ অক্টোবর) গুলিস্থান বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেল এর ৫৪তম জন্মদিন’ উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।      তিনি বলেন, বেগম জিয়া ও ড. কামাল হোসেনের মধ্যে মিল আছে।  বেগম জিয়া এবং ড. কামাল হোসেন দু’জনই কালো টাকা সাদা করেছিল। অর্থাৎ দুইজনের মধ্যে মিল আছে। সরকারকে অনুরোধ করবো  ড. কামাল হোসেন সাহেবরা তাদের মক্কেলদের কাছ থেকে কত ফি নেন এবং সরকারের টেক্স অফিসে কত ডিক্লেয়ার করেন এর তদন্ত করে গোয়েন্দা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অনিয়ম পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হোক। কেননা যারা ন্যায় ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্টার কথা বলেন আর অন্যায়ের সাথে আতাত করেন এবং যারা দুর্নীতি মুক্ত সমাজের কথা বলেন তারা পরিপূর্ণ দুর্নীতি মুক্ত থাকবেন সেটায় জনগণের প্রত্যাশা।   সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ড. কামাল হোসেন কথায় কথায় বলেন তিনি নাকি বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন অথচ তিনি আজকে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী, শেখ রাসেলের হত্যাকারী, সুকান্ত বাবুর হত্যাকারী এবং ৭৫’এ নারী ও শিশু হত্যাকারীদের ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। এমনকি তিনি দুর্নীতি মুক্ত সমাজ গঠনের কথা বলেন যাদের নেতৃত্বে বাংলাদেশ পরপর পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তাদের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন এবং দুর্নীতির দায়ে শাস্তি প্রাপ্ত বেগম জিয়ার মুক্তি চান। তিনি জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে কথা বলেন অথচ জঙ্গিদের পাশে বসে তিনি সাত দফার দাবি দিয়ে বললেন জঙ্গিবাদ দমন করতে হবে। এটি দেশের জনগণের সাথে মশকরা ও ভাওতাবাজী করা ছাড়া অন্য কোন কিছু নয়। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী যেমন বিএনপি জামাত এবং খন্দকার মুস্তাক গং। আজকে তাদের সহযোগি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে ড. কামাল হোসেন, মাহমুদুর রহমান মান্না, আ স ম রব গং। জাতীয় ঐক্যজোটের হাঁকঢাক খালি কলসি বাজার মতো মন্তব্য করে তিনি বলেন, ড. কামাল হোসেন, মাহমুদুর রহমান মান্না, আ স ম রবসহ বিএনপির ভাড়া করা এসব নেতাদের হাঁকঢাক বর্ষাকালের কোলাব্যাঙ ডাকার মতো। সুতরাং এই সব নেতাদের ভাড়া করে বিএনপি পার পাবে না।  এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেল এর স্মৃতির প্রতিও গভির শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদসহ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ প্রমূখ।   আআ/কেআই  

ব্যারিস্টার মইনুল রাজনৈতিকভাবে চরিত্রহীন: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, মাসুদা ভাট্টি একজন সৎ ও প্রখ্যাত সাংবাদিক। তাকে নিয়ে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন যে উক্তি করেছেন তা দুঃখজনক। ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন রাজনৈতিকভাবে ‘চরিত্রহীন।’ কারণ, তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী খন্দাকর মোশতাকের দলের একজন নেতা হয়েছিলেন। আজ রোববার তিনি এ সব কথা বলেন। তোফায়েল আহমেদ বলেন, ২০০৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর জামায়েত ইসলামের অঙ্গসংগঠন ছাত্রশিবিরের এক অনুষ্ঠানে গিয়ে তাদের গুণকীর্তন করেছেন মইনুল হোসেন। এখন আবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারী ও হত্যাকারীদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। আজ তার বক্তব্যের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের নারী সমাজ ঘৃণা পোষণ করেছে। দেশের ৫৫ জন সম্পাদক ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- আনোয়ারা তোফায়েল, ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মমিন টুলু, ভোলা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি হামিদুল হক বাহালুল, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকীব প্রমুখ। এসএইচ/

বৈঠকে বসেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বৈঠকে বসেছেন। রোববার বিকাল ৫টায় গণফোরামের মতিঝিলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই বৈঠক শুরু করেছেন নেতারা। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে জেএসডির কেন্দ্রীয় নেতা শহিদুদ্দিন মাহমুদ স্বপন বলেন, আজকের বৈঠকের পরে আনুষ্ঠানিকভাবে সমন্বয় কমিটি ও স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষণা করা হবে। এরআগে, গত ১৯ অক্টোবর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে শেষে জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন সাংবাদিকদের বলেন, একটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে কমিটির সদস্যদের নাম পরে ঘোষণা করা হবে। সমন্বয় কমিটিতে বিএনপির পক্ষ থেকে রয়েছেন, বরকতউল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, মনিরুল হক চৌধুরী ও হাবীবুর রহমান হাবিব। নাগরিক ঐক্যের পক্ষ থেকে রাখা হয়েছে, শহীদুল্লাহ কায়সার, মমিনুল ইসলাম ও ডা. জাহেদ উর রহমানকে। জেএসডির পক্ষ থেকে রয়েছেন, তানিয়া রব, আব্দুল মালেক রতন ও শহিদুদ্দিন মাহমুদ স্বপন। স্টিয়ারিং কমিটিতে বিএনপির পক্ষে রয়েছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। নাগরিক ঐক্যের পক্ষ থেকে রাখা হয়েছেন, মাহমুদুর রহমান মান্না, শহীদুল্লাহ কায়সার, মমিনুল ইসলাম, ডা. জাহেদ উর রহমান। জেএসডির পক্ষ থেকে রয়েছেন, আ স ম আবদুর রব, তানিয়া রব, আব্দুল মালেক রতন ও শহিদুদ্দিন মাহমুদ স্বপন। এসএইচ/

‘মা’ বলে ‘গো’ বলার সুযোগ দেব না: শামীম ওসমান

বিএনপি-জামায়াতের ‘ষড়যন্ত্রের’ বিষয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়ে নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকেন। যারা আমার নেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছে তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক চর্চা তো দূরের কথা, কোন আপোষ নেই। ২৭ অক্টোবর হলো ঘন্টা বাজানোর সভা। সেদিন `মা` বলে `গো` বলার সুযোগ দেব না বিএনপি-জামায়াতকে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় জালকুড়িতে প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান মেমোরিয়াল পার্কে (নম পার্ক) নির্বাচনী আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। নারায়ণগঞ্জ থেকে স্বাধীনতা বিরোধীদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম শুরু করা হবে উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে আওয়ামী লীগের জন্ম। নারায়ণগঞ্জ হলো রাজনীতির সূতিকাগার। নারায়ণগঞ্জ থেকে স্বাধীনতা বিরোধীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হবে। সারাদেশে তা ছড়িয়ে যাবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. সানাউল্লাহ, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক সওকত আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল প্রমুখ। / এআর /

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি