ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৪ ১৪২৮

অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে জেলহাজতে নোবিপ্রবি বাস চালক

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৫৬, ৬ মার্চ ২০২১

পূর্ব বিরোধের জের ধরে অন্যকে মাদক দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) বাস চালক জামসেদ উদ্দিন সোহাগ (৩৬) নিজেই ফেঁসে গেছেন। তাকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 

শুক্রবার (৫ মার্চ) দুপুরে সুবর্ণচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃত জামসেদ উদ্দিন সোহাগ হাজীপুর গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করা হয়েছে। পুলিশের এসআই নূর ইসলাম বাদী হয়ে এই মামলাটি করেন।

এলাকাবাসী জানায়, পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের হাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা জামসেদ উদ্দিন সোহাগের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী জহির উদ্দিনের সঙ্গে জমি নিয়ে পারিবারিক বিরোধ ছিল। বৃহস্পতিবার রাতে জহির স্থানীয় সমিরহাট বাজার দিয়ে যাচ্ছিল, এসময় পেছন থেকে ধরে তার হাতে একটি বাজারের ব্যাগ ধরিয়ে দেন জামসেদ। এই ব্যাগে সাড়ে তিন লিটার মদ। পরে মাদক ব্যবসায়ী বলে চিকিৎকার দিয়ে লোকজন জড়ো করে জহিরকে মারধর করে জামসেদ। তারপর মাদকসহ তাকে পুলিশে সোপর্দ করে।

চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল হক জানান, জহিরকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদের পর বিষয়টি সন্দেহজনক হলে রাতেই অভিযান চালিয়ে জামসেদকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জামসেদ তার অপরাধ স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, আমাদের আলাদা কোনো বক্তব্য নেই। তবে প্রচলিত আইন অনুযায়ী সে দোষী প্রমাণিত হলে আদালত যে শাস্তি দিবে তা মানা ছাড়া বিকল্প কিছু নেই। 
এএইচ/ এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি