ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৫ ১৪২৮

আমি বিনোদিনীর মতো চরিত্রেরই খোঁজ করি: পাওলি দাম

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:৩০, ২৭ জুন ২০২০

বাংলা ও হিন্দি দুই ভাষাতেই অভিনয় করে নজর কেড়েছেন পাওলি দাম। কাহিনিকার তথা পরিচালক অনভিতা দত্তের ছবি 'বুলবুল'-এর নাম ভূমিকায় তৃপ্তি দিমরির মতো তারকা থাকলেও অন্যতম মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন এই বঙ্গতনয়া। নেটফ্লিক্সের এই ছবিতে বিনোদিনীর চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন পাওলি। এই ছবিতে অবিনাশ তিওয়ারি, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এবং রাহুল বোস ও অভিনয় করেছেন।  

১৮৮১-এর বাংলাকে প্রেক্ষাপট হিসেবে তৈরি করে বাল্যবিবাহ, জমিদার প্রথা ও রাজবাড়ির অন্দরমহলের গল্প নিয়ে ঠাসা বুনোটে তৈরি এই ছবি। প্রযোজক অনুষ্কা শর্মা গা ছমছমে রহস্যে মোড়া ছবি উপহার দিতেই এটি তৈরি করেছেন। আগেই 'বুলবুল' এর ট্রেলার সকলের মনে শিহরণ জাগিয়েছে। অনেকেই বলছেন বুকের পাটা থাকতে হবে এই ছবি দেখতে গেলে। ছবিটি নেটফ্লিক্সে রিলিজ হয়েছে গত ২৪ জুন। 

একেবারে অল্প বয়সে বিয়ে হলে বাপের বাড়ি থেকে স্বামীর সংসারে চলে আসে বুলবুল। বয়সে তিনগুণ বড় স্বামী ইন্দ্রনীলের সঙ্গে বাধ্য স্ত্রী হয়েই থাকতে হয় তাঁকে। রাজপ্রাসাদের মতো বাড়িতে যমজ ভাই মহেন্দ্র, তাঁর স্ত্রী বিনোদিনী (পাওলি) ও ছোট ভাই সত্যকে নিয়ে ইন্দ্রনীলের সংসার। রাহুল বোস ইন্দ্রনীল ও মহেন্দ্র এই দুটি চরিত্রেই অভিনয় করেছেন। পাওলি দাম মহেন্দ্রের স্ত্রী বিনোদিনীর ভূমিকাতেই অভিনয় করেছেন।

পাওলি বিনোদিনী চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে বলেন,  "প্রথম দিকে কীভাবে এই চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলব তা নিয়ে বেশ দ্বিধাতেই ছিলাম আমি। তারপরে আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে আসলে ছবিতে বিনোদিনী একটি দুখী চরিত্র। 

ছোটবেলা থেকেই তাঁকে বোঝানো হয়েছিল যে কোনও প্রশ্ন না করে শুধু বিশ্বাসে ভর করে সকলের কথা মেনে চলো। যেহেতু জমিদার বাড়িতে বিনোদিনী বড় বউ ছিলো না তাই তাঁর ক্ষমতাও সীমিত, একথাও বোঝানো হয়েছিল তাঁকে"।

৩৯ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী মনে করেন যে বিনোদিনী চরিত্রটি সমাজের সমস্ত মহিলার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করে, পিতৃতন্ত্রের কাছে যাঁরা প্রতিদিন মাথা নত করে সব সহ্য করছে। " এই চরিত্রটি একদম অন্যরকম চরিত্র, বিনোদনী আসলে সেই সময়কার সমাজের শিকার ছিলেন। 

এখনও পর্যন্ত আমি বেশিরভাগই দৃঢ়চেতা মহিলাদের চরিত্রেই অভিনয় করেছি যাঁরা বরং অন্যের দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারে। এই প্রথমবার আমি এমন একটি চরিত্র করলাম যে সবসময় ভয়ে ভয়ে থাকে"।

এসইউএ/এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি