ঢাকা, শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৩ ১৪২৮

আলিয়াকে ক্রমাগত ধর্ষণের হুমকি 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:৪৭, ১৩ জুলাই ২০২০

মহেশ ভট্ট কন্যা শাহিন ভাট এবং আলিয়া ভাট গত এক মাস ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত ধর্ষণের হুমকি পাচ্ছেন। সেই সব হুমকিরই কয়েকটি স্ক্রিনশট ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে ক্ষোভ উগরে দিলেন শাহিন। সেই হুঁশিয়ারিও দিয়ে রাখলেন প্রয়োজনে আইনি পথেও হাঁটবেন তিনি।

গত ১৪ জুনের পর থেকে ঘটনার সূত্রপাত। ১৪ জুন অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুত বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হন। সুশান্তের মৃত্যুর সূত্র ধরে বলিউডের নেপোটিজম তত্ত্ব হঠাৎ করেই সামনে এসে যায়। আলিয়ার প্রতি কর্ণের পক্ষপাতিত্ব, সুশান্তের গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে মহেশ ভাটের বিশেষ বন্ধুত্বের বিষয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন নেটাগরিকদের একাংশ।   

এর পরেই ইনস্টাগ্রাম সহ সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় আলিয়া-কর্ণ-মহেশ সহ স্টারকিডদের উপর নেমে আসে জনতার ভার্চুয়াল আক্রমণ। আলিয়া এবং শাহিনকেও কদর্য ভাষায় আক্রমণ করা হয়, দেওয়া হয় ধর্ষণের হুমকিও।

আলিয়া চুপ করে থাকলেও, মুখ খুলেছেন শাহিন। তিনি লেখেন, ‘ভারতে প্রতি ১৫ মিনিটে একজন মহিলা ধর্ষিত হন। ৭০ শতাংশ মহিলা গার্হস্থ্য হিংসার শিকার। সেখানে আমাদের উপর এরকম আক্রমণে আপনি বিস্মিত? আমি নই।’

শাহিন এখানেই থামেননি। যাঁরা ওই সব মেসেজ পাঠাচ্ছেন তাঁদের উদ্দেশে শাহিনের বক্তব্য, “এর পরেও যদি এ রকম মেসেজ আমি পাই, তা হলে সবার আগে সেই ব্যক্তিকে ব্লক করে ইনস্টা কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট করব। প্রয়োজনে সেই ব্যক্তির নামও প্রকাশ্যে আনব। আইপি অ্যাড্রেস ট্র্যাক করা কিন্তু কঠিন কিছু নয়। আইনি পথে হাঁটব আমি।"

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি