ঢাকা, সোমবার   ১৪ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়তে যাচ্ছে এক ভয়ানক রকেট!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:২১, ৬ মে ২০২১

চীনা রকেট লং মার্চ ৫বি

চীনা রকেট লং মার্চ ৫বি

অচিরেই পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করে ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়তে পারে চীনা বিজ্ঞানীদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া উপগ্রহবাহী একটি ভারী রকেট। সম্প্রতি চীন থেকে নিক্ষেপ করার পর ‘লং মার্চ ৫-বি’ নামের ২১ টন ওজনের রকেটটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএন-এর বরাত দিয়ে রুশ বার্তা সংস্থা স্পুৎনিক এ খবর জানিয়েছে। 

এতে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়- পেন্টাগনের মুখপাত্র মাইক হাওয়ার্ড বলেছেন, রকেটটির সম্ভাব্য আছড়ে পড়ার স্থান সম্পর্কে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, মার্কিন সেনাবাহিনীর স্পেস বিভাগের কমান্ডের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, রকেটটি আগামী ৮ মে নাগাদ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করতে পারে। বর্তমানে রকেটটি প্রচণ্ড গতিতে মহাকাশের কক্ষপথে ঘুরতে থাকায় এটির গতিপথ শনাক্ত করা কঠিন; তবে ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়ার কয়েক ঘণ্টা আগে বলে দেয়া যাবে এটি ঠিক কোন স্থানে পড়বে।

এর আগে অনেক ঢাকঢোল পিটিয়ে গত ২৮ এপ্রিল রকেটটি উৎক্ষেপণ করেছিল চীন।

এদিকে আমেরিকার হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর অ্যাস্ট্রো ফিজিক্সের বিজ্ঞানী জনাথন ম্যাকডোয়েল সিএনএনকে বলেছেন, “আমরা ধারনা করছি, রকেটটি আগামী ৮ থেকে ১০ মে’র মধ্যে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করবে। এ সময়ের মধ্যে চীনা উপগ্রহবাহী রকেটটি প্রতি দুই দিনে পৃথিবীকে ৩০ বার প্রদক্ষিণ করবে। এ সময়ে ঘণ্টায় এটির গতি থাকবে ১৮ হাজার মাইল (প্রায় ২৯ হাজার কিলোমিটার)। কাজেই আপনি যদি এক ঘণ্টার হিসাবে গরমিল করেন তাহলে এটি আপনার ধারণার স্থান থেকে ১৮ হাজার মাইল দূরে কোথাও আছড়ে পড়বে।”

উল্লেখ্য, পৃথিবীর কক্ষপথে নিজের একটি মহাকাশ স্টেশন বানাতে চাচ্ছে চীন। প্রকল্পের নাম- ‘তিয়ানশে মহাকাশ স্টেশন’। এটি উৎক্ষেপণের জন্য কিছুদিন ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশটি। ওই মহাকাশ স্টেশনের একটি ‘মডিউল’ (অংশ) পরীক্ষামূলকভাবে পৃথিবীর কক্ষপথে পাঠাতে গত ২৮ এপ্রিল লং মার্চ ৫বি রকেট উৎক্ষেপণ করেছিল চীনা মহাকাশ গবেষণা সংস্থা।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি