ঢাকা, মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৫ ১৪২৮

হাইকোর্টের আদেশে বিজেসির উদ্বেগ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৩০, ১৫ জানুয়ারি ২০২১ | আপডেট: ২০:৪২, ১৫ জানুয়ারি ২০২১

সম্প্রতি অর্থ আত্মসাতের মামলায় পলাতক আসামি পিকে হালদারের বক্তব্য একাত্তর টেলিভিশনে প্রচার নিয়ে হাইকোর্ট আদেশ দিয়েছেন যে পলাতক আসামিদের বক্তব্য প্রচার করা যাবে না। শুধুমাত্র দুদকের বক্তব্য শুনে মহামান্য হাইকোর্টের দেয়া এ আদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং সব পক্ষের বক্তব্য তুলে ধরার মৌলিক নীতির চর্চা সীমিত হয়ে আসবে বলে উদ্বেগ জানাচ্ছে, দেশের টেলিভিশন সংবাদকর্মীদের প্রধান সংগঠন ‘ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার-বিজেসি। 

সংগঠনটি মনে করে, এ রকম গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় নিস্পত্তির আগে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের বক্তব্য শুনলে ন্যায় বিচার নিশ্চিত হবে। হাইকোর্টের আদেশটি সম্পর্কে ৪ জন সিনিয়র সাংবাদিকের দেয়া প্রতিক্রিয়া আদালত অবমাননা বলে দাবি করছেন দুদকের আইনজীবী। এর আগে আদালতে তিনি ৭১ টেলিভিশনের লাইসেন্স বাতিল করার আর্জিও জানান। আইন অনুযায়ী কমিশন তাকে যেসব কাজের অনুমোদন দেবে তিনি তার বাইরে যেতে পারেন না। আমাদের জানা মতে, কমিশন তাকে এসব কাজ করতে বলেনি। মনে রাখা দরকার, দেশে দুর্নীতি দমনে গণমাধ্যমের ভূমিকা কোনো অংশে কম নয়।

৭১ টেলিভিশনের বিরুদ্ধে মামলাটির পরবর্তী শুনানী আগামী ১৭ জানুয়ারি। বিজেসি মনে করে, বিষয়টি এই টেলিভিশনটির একার নয়, গোটা গণমাধ্যমের। বিজেসি তাই এই মামলায় পক্ষভূক্ত হবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পলাতক আসামিদের বক্তব্য প্রচারের ঘটনার বহু উদাহরণ দেশে এবং বিদেশে রয়েছে, যা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে। সুযোগ পেলে তা আদালতের কাছে তুলে ধরা হবে। বিজেসি আশা করে, মহামান্য হাইকোর্ট অ্যামিকাস কিউরি নিয়োগের মাধ্যমে এ বিষয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় সাংবাদিকদের বক্তব্য শুনবেন এবং সাংগঠনিকভাবে বিজেসি’কে  পক্ষভুক্ত করে আদালতে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেবেন। -সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি