ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৯ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ২৪ ১৪২৭

ভিডিও দেখুন

জাতীয় সংগীত ও বিশ্বকবিকে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে উগ্রপন্থীরা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৪৬, ২০ জানুয়ারি ২০২১

এবার জাতীয় সংগীত ও বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে উগ্রপন্থীরা। মনগড়া ধর্মীয় ব্যাখ্যা দিয়ে জাতীয় সংগীত পরিবর্তনের দাবি তোলার মতো স্পর্ধাও দেখাচ্ছে তারা। উগ্র গোষ্ঠীটি প্রপাগান্ডা ছড়াতে বেছে নিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। মুক্তিযোদ্ধা-গবেষকরা বলছেন, দেশকে পেছনে নিতেই এসব ষড়যন্ত্র চলছে। 

সারাদেশে ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকি, এরপর কুষ্টিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভেঙেই ক্ষান্ত হয়নি উগ্রপন্থীরা।

রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো মাঠে নামার পর ভাস্কর্যবিরোধীরা প্রকাশ্য তৎপরতা থেকে পিছু হটে। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখনও সরব সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীটি।

প্রতিবছর ভাষার মাস আসলেই নানা ষড়যন্ত্র শুরু করে তারা। এবারও ভাস্কর্যবিরোধীতার পাশাপাশি জাতীয় সংগীত ও বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দিচ্ছে উগ্রপন্থীরা। 

হেফাজতে ইসলাম নেতা জুনাইদ বাবু নগরী, মামুনুল হকরা এ অপতৎপরতার নেতৃত্ব দিচ্ছে। 

ধর্মের অপব্যাখা দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে যাচ্ছে তারা।

মুক্তিযোদ্ধা-গবেষকরা বলছেন, দেশকে পিছিয়ে দেয়ার আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই চলছে এসব অপতৎপরতা।

ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেন, মাদ্রাসায় কি পড়ানো হচ্ছে, সরকারের কোন নিয়ন্ত্রণ আছে? মাদ্রাসার ছেলেরা বলছে তারা জাতীয় সঙ্গীত গাইবে না। এটা কি করে বাংলাদেশে সম্ভব। 

এই অপশক্তি বাংলাদেশকে আফগানিস্তানের মতো বিশৃঙ্খল আর অস্থিতিশীল দেশ হিসেবে দেখতে চায় বলে মন্তব্য এই মুক্তিযোদ্ধা গবেষকের।

শাহরিয়ার কবির বলেন, মাদ্রাসাকে যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা নিয়ন্ত্রণে না আনতে পারছি, জঙ্গি মৌলবাদীদের উত্থান বন্ধ করতে পারবো না। 

উগ্রপন্থীদের প্রতিরোধ করেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নিতে হবে বলে জানান এই গবেষক।
ভিডিও :

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি