Ekushey Television

এশার ঘটনায় বহিষ্কার ২৪ ছাত্রলীগ নেত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৪১ পিএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার | আপডেট: ১০:১০ পিএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার

এশার ঘটনায় বহিষ্কার ২৪ ছাত্রলীগ নেত্রী

এশার ঘটনায় বহিষ্কার ২৪ ছাত্রলীগ নেত্রী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুফিয়া কামাল হল শাখার সভাপতি ইফফাত জাহান এশার উপর হামলার ঘটনায় ২৪ ছাত্রলীগ নেত্রীকে বহিষ্কার করেছে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সংসদ। আজ সোমবার সন্ধ্যায় সংগঠনটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুফিয়া কামাল হল শাখার সভাপতি ইফফাত জাহান এশার উপর হামলা ও গত ১০ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন, ছাত্রলীগের সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক খালেদা হোসেন মুন, সুফিয়া কামাল হল শাখার সহসভাপতি-আতিকা হক স্বর্ণা, মিরা, সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতী আক্তার সুমি, সহ-সম্পাদক শ্রাবণী, যুগ্ম সম্পাদক শারমিন আক্তার, উপ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আশা।

এ ছাড়া এ ঘটনায় নাট্যকলা বিভাগের ছাত্রলীগ নেত্রী লিজ, মিথিলা, সুদীপ্তা মন্ডল, সংগীত বিভাগের প্রিয়াঙ্কা দে, নৃবিজ্ঞান বিভাগের শারমিন সুলতানা, উর্দু বিভাগের মিতু, ভূতত্ত্ব বিভাগের শীলা, জাকিয়া, মনিরা,রুমা, জুঁই, অনামিকা দাশ, প্রভা, তানজিলা ওতাজ।

ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল রাতে কোটা সংস্কারের আন্দোলনে যাওয়ায় বেশ কয়েকজন ছাত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশাকে মারধর করে আন্দোলনকারীরা। ওই আন্দোলনকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ছাত্রলীগ নেত্রী ছিলেন বলেও অভিযোগ রয়েছে।

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করায় মোরশেদা আক্তারকে মারধর করেন এশা। পরে হল সভাপতি এশাকে ধরে জুতোর মালা পরিয়ে দেয় আন্দোলনকারীরা। এ ঘটনায় এশা মানষিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন।

ঘটনার পরপরই এশাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ। এরপরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও এশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ঘোষণা করে। এরপর ঘটনা অন্যদিকে মোড় নেয়। ছাত্রলীগ ওই রাতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন অনুসারে এশাকে নির্দোষ ঘোষণা করে ফের তার পদ ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, এশার উপর হামলার ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে এটাই কেন্দ্রের প্রথম কোনো পদক্ষেপ।

এমজে/