ঢাকা, রবিবার   ১২ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২৭ ১৪২৭

করাচিতে ১০৭ আরোহী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:০২ পিএম, ২২ মে ২০২০ শুক্রবার | আপডেট: ০৮:১২ পিএম, ২২ মে ২০২০ শুক্রবার

এখানেই বিধ্বস্ত হয় উড়োজাহাজটি। হতাহতদের উদ্ধার কাজ চলছে- এএফপি

এখানেই বিধ্বস্ত হয় উড়োজাহাজটি। হতাহতদের উদ্ধার কাজ চলছে- এএফপি

পাকিস্তানের বন্দরনগরী করাচির একটি আবাসিক এলাকার উপর পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় বহু মানুষের হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে। পিআইএ এয়ারলাইন্সের বিমানটিতে ৯৯ যাত্রীসহ ১০৭ জন আরোহী ছিল। খবর আল জাজিরা, রয়টার্স ও এএফপি’র। 

লাহোর থেকে করাচিগামী বিমানটি স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। করাচি বিমানবন্দরে অবতরণের আগ মুহূর্তে বিমানটি ‘মডেল কলোনি’ আবাসিক এলাকার কাছে এসে দ্রুত নীচে নেমে যায় এবং কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে এটির যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

এয়ার বাস এ ৩২০ মডেলের বিমাটি বিধ্বস্ত হওয়ার কিছুক্ষণ আগে যান্ত্রিক ত্রুটির কথা জানিয়েছিল। কন্ট্রোল টাওয়ার থেকে এ সময় পাইলটকে জানানো হয় বিমানবন্দরের দু’টি রানওয়েই উন্মুক্ত রয়েছে তিনি যে কোনো একটিতে অবতরণ করতে পারেন। কিন্তু পাইলট তা না করে মধ্য আকাশে বিমানের গতি পরিবর্তন করেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাস্থল থেকে কালো ধোঁয়া উড়তে এবং মানুষকে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।  স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, বিমানটি প্রায় পাঁচটি বাড়ি জুড়ে বিধ্বস্ত হয় এবং এসব বাড়িতেও আগুন ধরে গেছে। এ ঘটনায় হতাহতের বিবরণ এখনো প্রকাশিত হয়নি। বিমানের কিছু যাত্রীর বেঁচে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে পাকিস্তানের একাধিক গণমাধ্যম। 

এমএস/এসি