ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮

দুদক হটলাইন

দুর্নীতির অভিযোগ জানাতে কল করুন ১০৬-এ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:৪৫ পিএম, ১৬ জুন ২০২০ মঙ্গলবার

দুর্নীতি প্রতিরোধে সরাসরি অভিযোগ জানানোর জন্য হটলাইন নাম্বার চালু আছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক)। আপনার আশেপাশের দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষের তথ্য দিতে পারবেন দুদকে। দুর্নীতি ও অনিয়মের যে কোন তথ্য জানাতে কল করুন দুদকের হটলাইন নাম্বার ১০৬ -এ।

টেলিফোন বা যে কোনো মোবাইল ফোন থেকে কল করা যাবে এই হটলাইন নাম্বারে। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে (ফ্রী) এই কল করা যাবে বলে দুদকের গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, একাধিক ব্যক্তি একই সঙ্গে অভিযোগ জানাতে পারবেন। অভিযোগকারীর নাম ও পরিচয় গোপন রাখা হবে। অভিযোগকারী চাইলে তার বক্তব্য রেকর্ড করা যাবে। কল করা যাবে অফিস চলাকালে, অর্থাৎ সকাল ৯টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।

দুদক জানায়, এর মাধ্যমে জনগণের সঙ্গে তাদের প্রত্যক্ষ সংযোগ স্থাপিত হবে। দ্রুত দুর্নীতির তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যাবে। দুর্নীতির ঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গে অথবা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে—এমন অভিযোগ পেলে তাৎক্ষণিক প্রতিকার বা প্রতিরোধের ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। দুর্নীতির ঘটনা ঘটার আগেই প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি এবং কমিশনের প্রতি জনআস্থা সৃষ্টি হবে।

এদিকে, বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা এখন থেকে তাদের অভিযোগ এবং বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অনিয়মের কথা সরাসরি দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) বলতে পারবেন। প্রবাসীদের এই সেবা দিতে দুদক নতুন একটি হট লাইন চালু করেছে। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি কমিশন সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নতুন নম্বর হলো- +৮৮০১৭১৬-৪৬৩২৭৬।

দুদক সূত্র জানায়, দুদকের হটলাইন ১০৬-এ প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিভিন্ন দুর্নীতির বিষয়ে অভিযোগ করার সরাসরি সুযোগ পায় না। এ সমস্যার সাময়িক সমাধানের উদ্দেশ্যে নতুন একটি মোবাইল নম্বরে হটলাইনের সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুদক। নতুন নম্বর হলো- +৮৮০১৭১৬-৪৬৩২৭৬। এই নম্বরে যে কোনো সময় প্রবাসীরা অভিযোগ জানাতে পারবেন।

দুদক পরিচালক ও জনংসযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, প্রবাসী নাগরিকগণ বিভিন্ন দুর্নীতি ও অনিয়মের বিষয়ে অভিযোগ জানাতে সরাসরি দুদকের হটলাইন-১০৬ ব্যবহার করতে পারছেন না। তাই প্রযুক্তিগত এ সমস্যা দূর না হওয়া পর্যন্ত প্রবাসীরা নতুন এই নম্বরে যে কোনো সময় তাদের অভিযোগসমূহ জানাতে পারবেন।

এনএস/