ঢাকা, বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১৪ ১৪২৭

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি 

নারায়নগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে মুমূর্ষ রোগীদের রক্ত সহায়তা অব্যাহত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:০০ পিএম, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ শনিবার | আপডেট: ০৬:০১ পিএম, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ শনিবার

বিস্ফোরণে দগ্ধ একজনের স্বজনকে সান্তনা দিচ্ছেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি’র এক কর্মী- সংগৃহীত

বিস্ফোরণে দগ্ধ একজনের স্বজনকে সান্তনা দিচ্ছেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি’র এক কর্মী- সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় মুমূর্ষ রোগীদের চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় রক্ত সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। আজ শনিবার সোসাইটির পক্ষ থেকে ১০০ ইউনিট রক্ত শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি জাতীয় ইনস্টিটিউটের ব্লাড ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চাহিদা অনুযায়ী ব্লাড সরবরাহ করা হবে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এতে বলা হয়, ২৫ ইউনিট এ’পজিটিভ, ৩০ ইউনিট বি’পজিটিভ, ৪০ ইউনিট ও’পজিটিভ এবং ৫ ইউনিট এবি পজিটিভ ব্লাড ইতোমধ্যে সরবারহ করা হয়েছে। রক্তের জরুরী প্রয়োজন মেটাতে আরও ২৫০ জন ব্লাড ডোনার (রক্তদাতা) প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে যুব রেড ক্রিসেন্ট জাতীয় সদর দপ্তরের ব্লাড বিভাগের প্রধান জানিয়েছেন। 

অন্যদিকে দুর্ঘটনায় ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রোগীর পরিবারের সদস্যদেরকে মনোবল বৃদ্ধিতে গত রাত থেকে কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। সোসাইটির প্রশিক্ষিত স্বেচ্ছাসেবকরা এই সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। পাশাপাশি রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা রোগীর স্বজনদের সামলাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করছে। 

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির রেড ক্রিসেন্ট ব্লাড সেন্টারের ইনচার্জ ডা. মো. জাহিদুর রহমান জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চাহিদা প্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিকভাবে ১০০ ইউনিট ব্লাড সরবরাহ করা হয়েছে। প্রয়োজনে সরবরাহের জন্য আরও ব্লাড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। 

এর আগে বিস্ফোরণের ঘটনার পরপরই নারায়ণগঞ্জ জেলা রেড ক্রিসেন্টে ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবকরা ঘটনাস্থলে পৌছে এবং আহতদের উদ্ধার ও প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানসহ রোগীর স্বজনদের সব ধরনের সহযোগিতা করে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। 

এমএস/