ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০২৪,   বৈশাখ ১১ ১৪৩১

পাওনা টাকা চাওয়ায় কৃষককে কুপিয়ে জখম

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১০:৩২ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ বুধবার | আপডেট: ১০:৩৯ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ বুধবার

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ওবায়দুল্লাহ (৪২) নামে এক কৃষককে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। সে উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের সিংহলাল গ্রামের মৃত আব্দুল আহাদ খার ছেলে। এঘটনায় কলারোয়া থানায় ৩জনের নামে হত্যা প্রচেষ্টার একটি মামলা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের সিংহলাল গ্রামের মৃত আব্দুল আহাদ খার ছেলে কৃষক ওবায়দুল্লাহ খার কাছ থেকে বিদেশ যাওয়ার সময় প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীর খাঁ ৩ লাখ টাকা ধার হিসাবে নেয়। পরে ওই পাওয়ানা টাকা চাইতে গেলে জাহাঙ্গীর, জাহানারা খাতুন, ওসমাণ খা ক্ষিপ্ত হয়ে লোহার রড, দা, লাঠি সোটা নিয়ে হামলা করে। তাদের হামলায় মারাত্মক জখম হয়ে ওবায়দুল্লা খাঁর একটি পা নষ্ট হয়ে যায়। বর্তমানে সে প্রতিবন্ধী হয়ে পড়েছে। 

এ ঘটনা ঘটেছে-গত ১৯ ডিসেম্বর-১৯সালে। এই মামলায় থানা পুলিশ দীর্ঘ দিন তদন্ত শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। পরে এই মামলা থেকে আসামীরা নিজেদের বাঁচাতে সাতক্ষীরা আদালতে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলাটি আদালত তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য কলারোয়ার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে আদেশ দেন। সে অনুযায়ী ইউপি চেয়ারম্যান প্রতিবেদন দাখিল করেন। 

সেখানে বলা হয়েছে-বাদি পক্ষ জাহানারা খাতুন এ ঘটনায় কোন প্রকার স্বাক্ষী ও ঘটনার বিষয়ে আরজি বর্ণিত কোন কাগজ পত্রাদি দেখাতে পারে নাই। এছাড়া গোপনে তদন্ত করে আরজিবর্ণিত ঘটনার কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। 

এদিকে কৃষককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা মামলার এক নং আসামী জাহাঙ্গীর হোসেন গোপনে মামলা থেকে নিজেকে বাঁচাতে মালয়েশিয়া পালিয়ে গেছে।

আরকে//