ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭

পোপ জন পলের রক্ত চুরি!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:০১ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ সোমবার | আপডেট: ০৩:০৫ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ সোমবার

সেইন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকায় পোপ দ্বিতীয় জন পল। ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০০১। ছবি- ডয়চে ভেলে

সেইন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকায় পোপ দ্বিতীয় জন পল। ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০০১। ছবি- ডয়চে ভেলে

প্রয়াত পোপ দ্বিতীয় জন পলের কয়েক ফোঁটা রক্ত স্মারক হিসেবে রাখা ছিল ইতালির স্পোলেটো শহরের এক গির্জায়। রক্ত জমা রাখা সেই শিশি চুরি হয়েছে। খবর ডয়চে ভেলে’র। 

চুরির ঘটনাটি পুলিশকে জানানো হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্তও শুরু হয়েছে। স্পোলেটা গির্জার আর্চবিশপ রেনাতো বোকার্দো বলেছেন, ‘আমি আশা করতে চাই এটা নিছকই একটি চুরির ঘটনা। এর সঙ্গে বিশ্বাসীদের অনুভূতিতে আঘাত করার কোন সম্পর্ক নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই চুরি এটা বিক্রি করে অর্থ উপার্জনের উদ্দেশ্যে করা হয়নি। এটিও আমি বিশ্বাস করতে চাই।’

২০১৬ সালে এই পোপের রক্তসহ এই শিশি পোল্যান্ডের ক্রাকো গির্জার তৎকালীন আর্চবিশপ কার্ডিন্যাল স্তানিস্লাভ জিভিৎস স্পোলেটা গির্জাকে উপহার হিসেবে দেন। ২০০৫ সালে মৃত্যুবরণ করা পোলিশ পোপ দ্বিতীয় জন পলের দীর্ঘদিনের সহচর ছিলেন কার্ডিন্যাল স্তানিস্লাভ।

ইসলামের জন্মস্থানে পোপ:

(ছবি- রয়টার্স)

ঐতিহাসিক সফর:
সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্ব ভাতৃত্বের ডাক দিয়ে পোপ মিসরে আল আজহার মসজিদ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড ইমামের সঙ্গে দেখা করে একটি ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষর করেন। 

(ছবি- রয়টার্স)

ভাইরাল চুম্বন দৃশ্য: 
মিসরের ঐতিহাসিক আল আজহার মসজিদ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড ইমামের সঙ্গে এক ঐতিহাসিক ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন তিনি। এতে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে শান্তি প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানানো হয়। ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষরের পর দুই নেতার চুম্বনের দৃশ্য ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

(ছবি- রয়টার্স)

আবুধাবিতে স্বাগতম:
পোপকে আবুধাবি ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে স্বাগত জানান ক্রাউনপ্রিন্স মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। এরপর পোপ গ্র্যান্ড জায়েদ মস্কে মুসলিম উম্মাহর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

(ছবি- রয়টার্স)

প্রার্থনা করলেন আরব খ্রিস্টানদের জন্য: 
পোপ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে দেখা করেন স্থানীয় খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের সঙ্গে। আবুধাবির জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে ১ লাখ ২০ হাজার লোক উপস্থিত হয়েছিল। তাদের জন্য বিশেষ প্রার্থনা করেন পোপ। 

(ছবি- রয়টার্স)

শিশুদের জন্য আশীর্বাদ: 
বিশেষ আয়োজনে স্বল্প সময়ের মধ্যেও শিশুদের সঙ্গে সময় কাটান পোপ। তিনি আলাদা করে চেষ্টা করেন স্টেডিয়ামে উপস্থিত শিশুদের জন্য আশীর্বাদের স্পর্শ বিলিয়ে দিতে। তাদের কপালে চুমু দেন পোপ।

(ছবি- রয়টার্স)

পোপের জন্য মেরির মূর্তি:  
পোপের সফর উপলক্ষে আবুধাবির জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে যে আয়োজন করা হয় সেখানে মাতা মেরির একটি শ্বেত পাথরের মূর্তি স্থাপন করা হয়। পোপ সেখানে শ্রদ্ধা জানান ও প্রার্থনা করেন।

(ছবি- রয়টার্স)

ধর্ম যাজকদের কেলেঙ্কারি স্বীকার:  
আরব আমিরাত সফরে সাংবাদিকদের দেওয়া সাক্ষাতকারে পোপ যাজকদের যৌন কেলেঙ্কারির কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, গির্জার যাজকরা নানদের যৌন নিপীড়ন করেছেন। এমনকি অনেক যাজক নানদের যৌনদাসী করেও রেখেছিলেন।  ফলে পোপ বেনেডিক্ট এ কারণে পুরো একটি প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন।

এমএস/