ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৭

ঠাকুরগাঁওয়ে ছাত্রনেতা ও সাংবাদিককে কুপিয়ে জখম

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১১:৪৬ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ বুধবার

পূর্বশত্রুতার জের ধরে ঠাকুরগাঁওয়ে বাংলাদেশ শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা ছাত্র ইউনিয়নের যুগ্ম আহ্বায়ক আর এম রিংকু ও স্থানীয় সাংবাদিক জয়মহন্ত অলকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে এগারটার দিকে টাঙ্গন নদীর ব্রীজের ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ওই সময় সাংবাদিক জয় ও আর এম রিংকু সাংগঠনিক কাজ শেষে শহর থেকে কলেজপাড়ায় বাসায় ফিরছিল। এসময় টাঙ্গন নদীর ব্রীজের উপর ৬/৭ জনের একটি সন্ত্রাসীদল মোটরসাইকেল যোগে হেলমেট পরিহিত অবস্থায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই দুইজনকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এসময় তারা চিৎকার করতে থাকলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে পথচারী ও এলাকাবাসী গিয়ে তাদের উদ্ধার করে আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দীক বলেন, রাতে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে দুইজনকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছিল। হামলার ধরণ দেখে এমন ধারণা করা হচ্ছে। এজন্য জেলা ছাত্র ইউনিয়ন তীব্র প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে। 

বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি আহসানুল হক বাবু বলেন, সন্ত্রাসীরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে দুইজনের উপড় হামলা চালিয়েছে। তিনি আরো বলেন, মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত গুরুতর আহত রোগীদের হাসপাতালে ৭২ ঘণ্টা নিবিড় পরিচর্যায় রাখা হয়েছিল। কিন্তু ১২ ঘণ্টার মধ্যেই হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহরিয়ার শেখ রিফাত করোনার অজুহাত দেখিয়ে আহতদের রিলিজ দিয়েছেন। তিনি প্রভাবশালী কোন রাজনৈতিক নেতার ইশারায় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে উল্লেখ করে নিন্দা ও হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারসহ কঠোর শাস্তিও দাবি জানান।

এ ব্যাপারে চিকিৎসক শাহরিয়ার শেখ রিফাত বলেন, রোগীদের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করার পর করোনা পরিস্থিতিতে হাসপাতালে তাদের রাখা ঝুঁকিপূর্ণ মনে করে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। 

অপরদিকে আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: রাকিবুল আলম বলেন, রোগীদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক কেন তাদের ছাড়পত্র দিয়েছেন সে বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে পরিস্থিতি বিবেচনা করে ছাড়পত্র স্থগিত করা হয়েছে। 

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

এনএস/