ঢাকা, রবিবার   ১৯ মে ২০২৪,   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

পলাশে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ

নরসিংদী প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৩:৩৮ পিএম, ৮ নভেম্বর ২০২০ রবিবার

নরসিংদীর পলাশে স্বামীকে একটি আটকে রেখে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক কাউন্সিলরের ভাইয়ের বিরুদ্ধে। শনিবার (৭ নভেম্বর) রাতে পলাশ থানায় এ অভিযোগ করেছেন নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ। 

তবে এ মামলায় পুলিশ এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। পলাশ থানার ওসি তদন্ত মো: হুমায়ূন কবীর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগসূত্রে জানা যায়- ঘোড়াশাল পৌরসভার কাউন্সিলর আলম খন্দকারের ভাই অভিযুক্ত পাপ্পু খন্দকার। গত ২৬ অক্টোবর তার গাড়ি চালকের মাসিক বেতন দেয়ার কথা ছিল। বেতনের টাকা চালক নষ্ট করে ফেলবে এই অজুহাত দেখিয়ে চালকের স্ত্রীকে নিয়ে আসতে বলেন গাড়ির মালিক পাপ্পু খন্দকার। পরে মালিকের কথা অনুযায়ী, চালক তার স্ত্রীকে নিয়ে আসেন। ওই সময় পাপ্পু খন্দকার গাড়ী চালককে আটকে রেখে তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন। 

পরে গত শুক্রবারও (৬ নভেম্বর) গাড়ির মালিক পাপ্পু খন্দকার তার চালকের স্ত্রীকে নিয়ে আসতে বলেন। এতে রাজি না হয়ে শনিবার রাতে বিষয়টি নিয়ে পলাশ থানায় অভিযোগ করেন নির্যাতিত ওই গৃহবধূ।

পলাশ থানার ওসি তদন্ত মো: হুমায়ূন কবীর জানান, ধর্ষণের অভিযোগে ওই গৃহবধূর মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যহত আছে। সেইসঙ্গে ভুক্তভোগীর ডাক্তারি পরীক্ষাসহ অন্যান্য আইনী কার্যক্রম অব্যহত আছে।

এনএস/