ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৯ ১৪২৮

রাবির রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েটদের তালিকা করতে হাইকোর্টের নির্দেশ 

রাবি সংবাদদাতা 

প্রকাশিত : ০৯:২৪ এএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২১ মঙ্গলবার

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েটদের তালিকা ছয় মাসের মধ্যে তৈরি করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের প্রতি এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

প্রায় দুই যুগ ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠানে নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে রাকসুর সাবেক ভিপি রাগিব আহসান ও সাবেক দুজন সিনেট সদস্যসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক চার শিক্ষার্থী গত বছর এই রিটটি করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আমিনুল হক হেলাল। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী নাজিম মৃধা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী।

রুলে ২৩ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠানে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বিশ্ববিদ্যালয় আইনের ২০ ধারা ও সংবিধান পরিপন্থী ঘোষণা করা হবে না এবং সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, রেজিস্ট্রার ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিবসহ বিবাদীদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আইনজীবী আমিনুল হক হেলাল বলেন, ‘সর্বশেষ ১৯৯৪ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন হয়।’

এরপর আর নির্বাচনের উদ্যোগ দেখা যায়নি। ১৯৭৩ সালের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইনের ২০ ধারা অনুসারে তিন বছর মেয়াদে সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনের কথা রয়েছে। কিন্তু সিনেটে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনসহ অন্যান্য সদস্য পদে নির্বাচন হলেও রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন হচ্ছে না, যা সংবিধানের ২৭ ও ৩১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বৈষম্যমূলক। এসব যুক্তিতে রিটটি করা হয়েছিল। শুনানি নিয়ে আদালত রুল দিয়ে এই নির্দেশ দেন।
এআই/এসএ/