ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৯ ১৪২৮

তারকাবহুল ছয় বাংলাদেশি নাটক আনছে জিফাইভ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৪:২৭ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ মঙ্গলবার | আপডেট: ১০:২২ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বুধবার

বাংলাদেশে নির্মিত তারকাবহুল ছয়টি নাটক বা শর্ট ফিল্ম মুক্তি পেতে চলেছে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ওটিটি প্ল্যাটফর্ম জিফাইভ গ্লোবাল-এ। এর ফলে প্ল্যাটফর্মটির সমৃদ্ধ বিনোদন ভান্ডারে স্থানীয় কনটেন্টের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজেদের মেলে ধারার সুযোগ পেলেন স্থানীয় নির্মাতা ও শিল্পীরা। 

রোমান্স, প্রহসনমূলক, ব্যাঙ্গ ও রোমাঞ্চকর ধাঁচের এই নাটকগুলোতে অভিনয় করেছেন তৌসিফ মাহবুব, তাসনিয়া ফারিন, জিয়াউল অপূর্ব, শিবা আলী খান, ইরফান সাজ্জাদ, সারিকা সাবাহ, অহনা রহমান, মোশাররফ করিম ও তারিনসহ আরো অনেকে। নাটকগুলো আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি ‘জি ড্রামা টাইম’ নামে জিফাইভ গ্লোবাল’র নতুন বিভাগে মুক্তি পাবে।

ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে একই সাথে বসন্তের মাস, একই সাথে ভালবাসার মাস। আর ভালবাসা নিয়ে জনপ্রিয় দুটি গান ‘পিরিতি কাঁঠালের আঠা’ এবং ‘হৃদ মাঝারে রাখব’র ওপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে এই নাটকগুলো।   

‘পিরিতি কাঁঠালের আঠা’ মানে ভালবাসার বন্ধন কাঁঠালের আঠার মতো জোরালো। জনপ্রিয় এই বাউল বা লোক সঙ্গীতের ওপর ভিত্তি করে নির্মীত হয়েছে মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘তোমার টানে’, মেহেদী হাসানের ‘২৫২১’ এবং মোহন আহমেদের ‘বিয়ে শাদী’।

‘হৃদ মাঝারে রাখব’র ওপর ভিত্তি করে নির্মীত হয়েছে শাখাওয়াত মানিকের ‘চেনা মুখ, অচেনা ঠিকানা’, মেহেদী হাসানের ‘হাই ভলিউম’ এবং সোহেল হাসানের ‘নো প্রেম নো বিয়ে’। রোমান্টিক টাইটেলই বলে দিচ্ছে গভীর ভালবাসার আবেশ নিয়ে তৈরি হয়েছে এই নাটকগুলো।

জিফাইভ গ্লোবাল’র চিফ বিজনেস অফিসার অর্চনা আনন্দ বলেন, “আমাদের প্রথম বাংলাদেশী অরিজিনাল ‘মাইনকার চিপায়’ ও ডঞঋৎু দেশব্যাপী সাড়া ফেলেছে। এবার বাংলাদেশের অন্যতম নির্মাতা এবং জনপ্রিয় শিল্পীদের নিয়ে ছয়টি নাটক আনতে দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। দেশের সব মানুষ যেন স্থানীয়ভাবে নির্মিত এই নাটকগুলো উপভোগ করতে পারেন এজন্য বিনামূল্যে কনটেন্টগুলো দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিফাইভ। এই নাটকগুলো আন্তর্জাতিক দর্শকদের বাংলাদেশী কনটেন্টের প্রতি আকৃষ্ট করবে বলে আমাদের প্রত্যাশা।”   

মুক্তি পেতে যাওয়া শর্ট ফিল্ম বা নাটকগুলোর কাহিনী সংক্ষেপ:
হাই ভলিউম: মেহেদী হাসান পরিচালিত হাই ভলিউম’র কাহিনী একজন পিজ্জা ডেলিভারি বয় এবং একজন বধির মেয়ের ভালবাসাকে ঘিরে; স্বপ্ন পূরণে নানা ঘাত-প্রতিঘাত ও বাস্তবতার মুখোমুখি হয় তারা। অহনা রহমান ও তৌসিফ মাহবুব অভিনীত এই নাটকটিতে রয়েছে রোমান্স ও কমেডির মিশ্রণ।

চেনা মুখ অচেনা ঠিকানা: ইরফান সাজ্জাদ ও সারিকা অভিনীত রোমান্টিক কমেডিভিত্তিক নাটক হচ্ছে ‘চেনা মুখ অচেনা ঠিকানা’। এর কাহিনী নাটকের নামের মতই ভিন্ন দ্যোতনার সৃষ্টি করেছে। মনের মতো জীবনসাথী খুঁজতে গিয়ে নিয়তি দূরে ঠেলে দেয়, আবার একই সাথে এক করে দেয় আমাদের কাহিনীর মূখ্য চরিত্র আবির ও তুলিকে।  

নো প্রেম নো বিয়ে: মোশাররফ করিম, তারিন ও সারিকা অভিনীত ‘নো প্রেম নো বিয়ে’ নাটকটির কাহিনী বেশ জট পাকানো এবং মজার; হারানো ভালবাসা এবং বস ও কর্মীর বিশ্বাসঘাতকতা নিয়ে এগিয়েছে কাহিনী। এখানে ভালবাসার ধরণটা ভিন্ন; জেরিনের অতীত তাকে আড়ষ্ট করে রাখে, অন্যদিকে তার নিয়মের বিরূদ্ধে এক ভুল পদক্ষেপ নেয় মাসুদ। কী হবে শেষটায়? 

২৫২১: এক ভিন্নধর্মী খুনের কাহিনী নিয়ে সাজানো হয়েছে ২৫২১ যাতে মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় টিভি তারকা তৌসিফ মাহবুব ও শিবা আলী খান। সিআইপি হান্নান মল্লিকের হত্যা রহস্য উদঘাটনে নামে গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা রাজ, যিনি এক্ষেত্রে সিদ্ধহস্ত। কিন্তু এই কেসটি সামলাতে গিয়ে কেমন যেন সব এলোমেলো হয়ে যায়। যতই কেসের গভীরে যেতে থাকেন এমন সব বিষয় আসতে থাকে যা তিনি নিজেও বিশ্বাস করতে পারেন না। 

তোমার টানে: অপূর্ব ও ফারিন অভিনীত ‘তোমার টানে’ নাটকটিতে ছোট এক শহরের মেয়ে ফারিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার সাথে পরিচয় শাফিনের সাথে; সে এক মহানগরের বাসিন্দা। শাফিনের আসল উদ্দেশ্য বুঝতে না পেরে বাড়ি থেকে পালিয়ে তাকে বিয়ের জন্য ঢাকায় আসে ফারিয়া এবং এক ঘোর বিপদে জড়ায়। কোনমতে সেখান থেকে পালিয়ে বাঁচে সে; এরপর দেখা হয় আহসানের সাথে। আহসান দুর্ভাগ্যের বেঁড়াজাল থেকে তাকে মুক্তি দেয়, এনে দেয় এক নতুন জীবনের সন্ধান।  

বিয়ে শাদী: অনাকাক্সিক্ষত এক সম্পর্কের ফলস্বরূপ ভালবাসা আর ঘৃণার আবর্তে রচিত হয়েছে বিয়ে শাদী নাটকের কাহিনী। তৌসিফ ও ফারিন অভিনীত বিয়ে শাদী নাটকে দুর্ভাগ্যবশত দূরে সরে যায় শায়না ও আনাস। কিন্তু বিধিলিপি ছিল ভিন্ন। তাদের ভাই ও বোন যখন ভালবেসে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে চায়, তখন তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে বিয়েটা ভেঙে দেয়ার জন্য। কিন্তু সেখানেই সত্যিকারের ভালবাসার খোঁজ পায় তারা। গুগল প্লে­স্টোর অথবা আইওএস অ্যাপ স্টোর থেকে গ্রাহকরা জি ফাইভ অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন। 

আরকে//