ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

ফতুল্লায় কিশোর-কিশোরীর কাণ্ডে চাঞ্চল্য

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৭:০৭ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শনিবার

নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লায় ১৫ বছরের এক কিশোর জুটির কাণ্ডে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে পুরো এলাকায়। ১৫ বছরের কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে নাবালক ওই কিশোরের বিরুদ্ধে। এতে গর্ভবতী হয়ে পড়েছে ওই কিশোরী। 

ঘটনাটি ঘটেছে ফতুল্লার শাসনগাও এলাকায়। কিশোরীর পিতা কাউছার মিয়া বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) রাতে কিশোর তানজিমকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত তানজিম ফতুল্লা থানার শাসনগাও এলাকার জাহাঙ্গীর মিয়ার পুত্র।

জানা যায়, ভুক্তভোগী কিশোরী ও অভিযুক্ত কিশোর তানজিম এক সময় শাসনগাও এলাকায় পাশাপাশি বাড়িতে বসবাস করতো। সে সুবাদে তাদের মধ্যে গভীর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর সেই সম্পর্কের সূত্র ধরে কিশোর তানজিন একাধিকবার ওই কিশোরীর সাথে দৈহিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। 

এরই জেরে সর্বশেষ গত ১৫ ডিসেম্বর রাতে তানজিম ভুক্তভোগী কিশোরীকে তার নিজ বাসায় নিয়ে গিয়ে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার সময় ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে। পরবর্তীতে কিশোর তানজিমের পরিবার বিয়ে করিয়ে দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কিশোরীকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পাঠিয়ে দেয়। পরে তারা শাসনগাঁও থেকে মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকায় স্থানান্তরিত হয়। এরই মধ্যে চলতি মাসের ৪ তারিখে ভুক্তভোগী কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে ডাক্তারের পরামর্শে আলট্রাসনোগ্রাফি করলে তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ আসলাম হোসেন জানান, অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাদীর লিখিত অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে গভীরভাবে তদন্ত করা হবে বলে তিনি জানান। কিশোরীর পরিবার তানজিমের পরিবারের সদস্যদের অবগত করলে তারা কোনও কর্ণপাত না করে বিষয়টি পুরোপুরি এড়িয়ে যায়।

এনএস/