ঢাকা, রবিবার   ১৬ মে ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

খাবার দিতে দেরি কেন বলতেই নাক ফাটিয়ে দিলেন বয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৫ পিএম, ১০ মার্চ ২০২১ বুধবার | আপডেট: ১০:০০ পিএম, ১০ মার্চ ২০২১ বুধবার

খাবার পৌঁছাতে দেরি করেছে প্রায় এক ঘণ্টা। প্রশ্ন করলে এবং খাবার ফিরিয়ে দিতে চাইলে শুরু হয় বিতর্ক। তারপরই ঘুসি মেরে নাক ফাটিয়ে দেয় মহিলার। ঘটনাটি ঘটে ভারতে। গোটা ঘটনার ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন ওই মহিলা। যা ভাইরাল হতেই নড়ে চড়ে বসে জোম্যাটো। এ ঘটনায় টুইটার মারফত সংস্থা থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়।

ঠিক কী ঘটেছিল? মহিলার নাম চন্দ্রানী। তিনি জোম্যাটো মারফত খাবার অর্ডার করেন। দুপুর ৩.৩০ নাগাদ খাবার ডেলিভারি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু খাবার আসতে ৪.৩০ হয়ে যায়। এই দীর্ঘ সময়ে চন্দ্রানী জোম্যাটো এক্সিকিউটিভের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি দাবি করেন, তাঁর খাবার ফ্রি করে দেওয়া হোক নয়ত ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক।   

ঘণ্টা খানেক পরে খাবার নিয়ে পৌঁছন জোম্যাটো ডেলিভারি বয়। পৌঁছে খুব অসভ্যের মতো ব্যবহার করেন তিনি, অভিযোগ চন্দ্রানীর। ডেলিভারি বয়কে দাঁড়াতে বলেন তিনি। সেই সময় ফ্রিতে বা খাবার ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব কিনা সে বিষয়ে কথা বলছিলেন তিনি। কিন্তু ডেলিভারি বয় দাঁড়াতে রাজি হয় না এবং খাবার ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চান না। এরপরই শুরু হয় বচসা। জোম্যাটো ডেলিভারি বয় ঘুসি মেরে নাক ফাটিয়ে দেয় গ্রাহক চন্দ্রানীর। গল গল করে রক্ত বেরিয়ে আসে। 

জানা গিয়েছে, তাঁর নাকের হাড় ভেঙে গিয়েছে। অপারেশন করতে হয়েছে। 

ঘটনায় জোম্যাটো জানিয়েছে, "আমরা কীভাবে ক্ষমা চাইব বুঝতে পারছি না। ঘটনায় আমরা খুবই দুঃখিত। বিশ্বাস করুন আমাদের খাবার ডেলিভারি ব্যবস্থা এতটাও খারাপ নয়। স্থানীয় পুলিশে জানান হয়েছে। অপরাধী শাস্তি পাবেন। আপনার চিকিৎসার জন্য যা যা সহযোগিতার প্রয়োজন জোম্যাটো করতে প্রস্তুত'।  

এসি