ঢাকা, শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭

ঘামের দুগন্ধ থেকে মুক্ত থাকতে

প্রকাশিত : ০৫:১৯ পিএম, ১০ জুন ২০১৭ শনিবার | আপডেট: ১১:৫০ এএম, ১১ জুন ২০১৭ রবিবার

দিন দিন গরমের প্রকোপ বেড়েই চলেছে। আর গরম মানেই ঘাম। কাজের প্রয়োজন সারা দিন যদি বাইরে থাকতে হয় তা হলে অবধারিত ঘাম হবেই। তবে ঘাম হওয়া মানেই কিন্তু ঘামের দুর্গন্ধ নয়। আবার প্রচুর পারফিউম, ডিওডরান্ট লাগিয়ে দুর্গন্ধ দূর করারও প্রয়োজন নেই। কয়েকটা দিক খেয়াল রাখলেই ঘামের দুর্গন্ধ কাটিয়ে ওঠা যায় খুব সহজে।

গোসল:

নিয়মিত দিনে দু’বার অবশ্যই ভাল করে গোসল করুন। অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল সাবান দিয়ে বগল ভাল করে পরিষ্কার করুন। জীবাণুমুক্ত থাকলে ঘামের দুর্গন্ধ হয় না। গোসলের পর অবশ্যই শুকনো করে মুছে নিন সারা শরীর। বিশেষ করে যে অংশগুলোয় ঘাম বেশি হয়। যেমন বগল, স্তনের নীচে, কনুইয়ের ভাঁজ। যত শুকনো থাকবে শরীর ঘাম থেকে দুর্গন্ধ তত কম হবে।

সুতি কাপড়:

গরমে অবশ্যই রোজ সুতির জামা-কাপড় পরুন। প্রতি দিন কাচা পোশাক পরবেন। হালকা, ঢিলেঢালা, আরামদায়ক পোশাক পরবেন। এতে ঘাম কম হবে। সুতির পোশাকে গায়ে দুর্গন্ধ হয় না।

অ্যান্টি-পারসপিরান্ট:

কোনও ভাল অ্যান্টি-পারসপিরান্ট অবশ্যই ব্যবহার করুন। ডিওডরান্ট থেকে ব্রেস্ট ক্যানসারের আশঙ্কা থাকলেও অ্যান্টি-পারসপিরান্ট অনেক সুরক্ষিত। অ্যান্টি-পারসপিরান্ট ঘাম শুষে নিয়ে বগল অনেকক্ষণ শুষ্ক রাখতে সাহায্য করে।

পানি পান করুন:

গরম কালে ঘামের দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পেতে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় নিজেকে হাইড্রেটেড রাখা। দিনে অবশ্যই ২-৩ লিটার পানি পান করুন। যত বেশি পানি পান করবেন শরীর তত টক্সিনমুক্ত থাকবে। ফলে দুর্গন্ধ হবে না।