ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ এপ্রিল ২০২৪,   বৈশাখ ১০ ১৪৩১

দিলীপ কুমারের স্ত্রী সায়রা বানু ইনটেনসিভ কেয়ারে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:১৪ পিএম, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১ বুধবার

রক্তচাপজনিত সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি প্রবীণ অভিনেত্রী সায়রা বানু। মুম্বাইয়ের বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। আপাতত তিনি রয়েছেন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে। সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর, অসুস্থতার কারণে তিন দিন আগে তিনি ভর্তি হন হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি ঘটায় বুধবার সকালে তাকে স্থানান্তরিত করা হয় বিশেষ কেয়ার বিভাগে।

প্রসঙ্গত, এই হাসপাতালেই ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন অভিনেত্রীর স্বামী দিলীপ কুমার। বার্ধক্যজনিত দীর্ঘ রোগভোগের পর ৭ জুলাই এখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কিংবদন্তি অভিনেতা। বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। সে সময় প্রবীণ অভিনেত্রী পাশে পেয়েছিলেন তাঁর ‘মুহ বোলা বেটা’ (পাতানো সম্পর্ক) শাহরুখ খান, বলিউডের আর এক তারকা অভিনেতা ধর্মেন্দ্রকে। 

দিলীপ কুমারের মৃত্যু দীর্ঘ কয়েক দশকের দাম্পত্যে দাঁড়ি টানতেই মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েছিলেন সায়রা বানু। শেষকৃত্যের পর অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, ‘‘আল্লা আমার বেঁচে থাকার কারণ কেড়ে নিলেন। ‘সাহাব’কে ছাড়া আমি কিছু ভাবতে পারি না।’’

‘জংলি’ সায়রা বানুর প্রথম হিন্দি ছবি। বিপরীতে ছিলেন প্রয়াত অভিনেতা শাম্মি কাপূর। তাকে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছিল ‘পড়োশন’ (১৯৬৮), ‘হেরা ফেরি’ (১৯৭৬), ‘দিওয়ানা’ (১৯৬৭) ‘পুরব ঔর পশ্চিম’ (১৯৭০)-এর মতো ছবি। ১৯৬৬-তে তাঁর ‘স্বপ্নের রাজকুমার’ দিলীপ কুমারের সঙ্গে বিয়ে হয় সায়রার। তখন তার বয়স মাত্র ২২। বিয়ের পরেও আরও ১০ বছর অভিনয় করেন তিনি। সূত্র: আনন্দবাজার

এসি