ঢাকা, সোমবার   ২০ মে ২০২৪,   জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

ঈদ স্পেশাল চিকেন বিরিয়ানি

হাসিনা আনছার

প্রকাশিত : ১১:৩৯ এএম, ৩ মে ২০২২ মঙ্গলবার

রন্ধনশিল্পী হাসিনা আনছার ও তার চিকেন বিরিয়ানি

রন্ধনশিল্পী হাসিনা আনছার ও তার চিকেন বিরিয়ানি

এই ঈদে প্রিয়জন কিংবা অতিথি আপ্যায়নে তৈরি করুন দারুণ মজাদার সুস্বাদু চিকেন বিরিয়ানি। তাহলে দেখে নিন, ঈদের স্পেশাল চিকেন বিরিয়ানি তৈরির উপকরণ ও প্রক্রিয়া প্রণালী।
 
উপকরণ:
 বাসমতী চাল - ৫০০ গ্রাম
 চিকেন - ১ কেজি
 পেঁয়াজ কুঁচি - ২টি (বড়)
 ভাজা পেঁয়াজ/বেরেস্তা - ১ কাপ
 আদা রসুন বাটা - ৩ টেবিল চামচ
 টক দই -  ১/২ কাপ
 টমেটো কুচি - ১টা
 কাচা মরিচ - পরিমাণ মতো
 আলু - ৩টি বড়
 হলুদ - ১/২ চা চামচ
 লবণ- স্বাদ মতো
 লেবুর রস - ১ টেবিল চামচ
 তেল + ঘি - ২০০ গ্রাম
 কেওড়ার জল
 মিঠা আতর
 দুধ - ১ কাপ
 শুকনো খোয়া চিনি ছাড়া - হাফ কাপ

বিরিয়ানির জন্য মসলা:
 বিরিয়ানি মসলা - ২ টেবিল চামচ
 ছোটো এলাচ - ৭/৮টি
 বড়ো এলাচ - ১টি
 লবঙ্গ - ৭/৮টি
 দারচিনি - ১ ইঞ্চি ২টি
 জয়ত্রি - ১টি
 তেজপাতা - ৪টি
 গোলমরিচ - ৯/১০টি
 জিরা গুঁড়ো - ১ চা চামচ
 আটা 

প্রস্তুত প্রণালী:
চিকেনটা- পরিষ্কার করে ধুয়ে হলুদ, দই, লবণ মাখিয়ে ১ ঘণ্টা ম্যারিনেট করতে হবে।
চাল- ভালো করে ধুয়ে ৩০-৪০ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন।
আটা- পানি দিয়ে রুটির মতো মেখে রাখুন।
পেঁয়াজ- তেলে লাল করে ভেজে তুলে রাখুন। 
আলু- খোসা ছাড়িয়ে চার টুকরো করে ওই তেলে লবণ দিয়ে লালচে করে ভেজে তুলে রাখুন।

বিরিয়ানি রাইস তৈরি -
একটা হাঁড়ি বা ডেকচিতে চালের দ্বিগুণের একটু বেশি পানি চুলায় চাপিয়ে দেড় টেবিল চামচ লবণ, এক চা চামচ তেল ও এক টেবিল চামচ পাতি লেবুর রস দিন।

পানি বেশ গরম হয়ে এলে ৪টি এলাচ, ৪টি লবঙ্গ, ১টি দারচিনি, হাফ জয়ত্রি, কয়েকটি গোলমরিচ, ২টি তেজপাতা দিন। পানি ফুটে উঠলে চাল দিন। ৮০/৯০% সেদ্ধ হলে মাড় ঝরিয়ে ফেলুন।

চিকেন তৈরি-
কড়াইতে তেল ও ঘিয়ের মিশ্রণ বা শুধু ঘি দিয়ে গরম করে তাতে বাকি গোটা গরম মসলা তেজপাতা দিয়ে সুগন্ধ ছাড়লে কুঁচি করা পেঁয়াজটা দিয়ে ভাজতে হবে।

হালকা ভাজা হলে আদা রসুন বাটা দিয়ে একটু কষে তার মধ্যে চিকেনটা দিয়ে জিরা গুঁড়ো ও বিরিয়ানি মসলা, টমেটো কুচি, কাঁচা মরিচ দিয়ে সব এক সাথে কষতে থাকুন।

তেল ছাড়লে ৩ কাপ মতো গরম পানি দিয়ে ভেজে রাখা আলুগুলো দিয়ে চিকেন সেদ্ধ করে নিন। সেদ্ধ হলে ঝোল বেশি হবে না, গা মাখা গ্রেভি থাকবে।

চুলা বন্ধ করার ৫ মিনিট আগে ২ টেবিল চামচ বিরিয়ানি মসলা দিন। মসলার পরিমাণ স্বাদ অনুযায়ী একটু কম বেশি করতে পারেন।

বিরিয়ানি দমে রাখা
একটি ভারী তলা যুক্ত বড়ো পাত্র নিন। ভারী তলা যুক্ত পাত্র না থাকলে এমন কোনো পাত্র নিতে পারেন যেটা লোহার তাওয়ার ওপর চুলায় বসানো যাবে। পাত্রের ভেতর দিকে ঘি মাখিয়ে নিন।

কিছুটা চিকেন সরিয়ে রেখে বেশিরভাগ চিকেন গ্রেভিসহ পাত্রে রেখে ওপরে সেদ্ধ করা অর্ধেকটা বিরিয়ানি রাইস আলতো করে বিছিয়ে দিন। এবার রাইসের ওপর মাঝখানে বাকি চিকেন, আলু, ভেজে রাখা পেঁয়াজের কিছুটা আর ১ টেবিল চামচ ঘি ছড়িয়ে দিন।

এবার বাকি রাইসটা বিছিয়ে দিয়ে ওপরে ২ টেবিল চামচ ঘি, বাকি পেঁয়াজ ভাজা, খোয়াটা হাতে গুঁড়ো করে ছড়িয়ে দিন।

এবার দুধটা নিয়ে তাতে ১ চা চামচ কেওড়ার জল আর ১/২ ফোঁটা মিঠা আতর ভালো করে মিশিয়ে ছড়িয়ে দিন।

বিরিয়ানি পাত্রটি এবার ঢাকনা দিয়ে মুখটা আটামাখা দিয়ে সীল করে চুলায় বসান।

বেশ ভারী তলা পাত্র হলে ২/৩ মিনিট মাঝারি আঁচে রেখে আঁচ কমিয়ে ২০ মিনিট রেখে চুলা বন্ধ করে ৫ মিনিট রাখুন। 

আর হালকা তলাওয়ালা পাত্রের ক্ষেত্রে গ্যাসে লোহার তাওয়া গরম করে বিরিয়ানি পাত্র বসিয়ে ২/৩ মিনিট হাই হিটে জ্বাল দিয়ে আঁচ কমিয়ে ২৫ মিনিট রেখে চুলা বন্ধ করে ৫ মিনিট রাখুন। এরপর পরিবেশন করুন।

এনএস//