ঢাকা, সোমবার   ২০ মে ২০২৪,   জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

বাংলাদেশকে ১৩৫ রানের টার্গেট দিল নিউজিল্যান্ড

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:০৫ পিএম, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩ বুধবার

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে বাংলাদেশকে ১৩৫ রানের টার্গেট দিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে টস টসে জিতে কিউদের ব্যাটিংয়ে পাঠান অধিনায়ক নাজমুল হাসান শান্ত। 

ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল করেনি স্বাগতিকরা। প্রথম ওভারেই টিম সেইফ্রেটকে সাজঘরে ফেরান মাহেদি হাসান। পরের ওভারে জোড়া আঘাত শরিফুল ইসলামের। ফিন এলান ও গ্লেন ফিলিপসকে আউট করেন তিনি। ব্যাটিং ব্যর্থতার মাঝেও জেমস নিশামের ৪৮ রানে ভর করে ৯ উইকেটে ১৩৪ রান তোলে নিউজিল্যান্ডস। 

ইনিংসের প্রথম ওভারেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দেন স্পিনার শেখ মেহেদী হাসান। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরে যান টিম সেইফার্ট।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে প্রথম তিন বলেই জোড়া আঘাত হানেন পেসার শরিফুল ইসলাম। দ্বিতীয় বলে ৩ বলে ১ রান করা ফিন অ্যালান ও তৃতীয় বলে ক্রিজে আসা গ্লেন ফিলিপসকে রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফেরান শরিফুল। হ্যাটট্রিকের আশা জাগিয়েও তা করতে পারেননি এই টাইগার পেসার।

এরপর ড্যারিল মিচেল ও মার্ক চ্যাপম্যান মিলে শুরু ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বোলিংয়ে এসে আবারও বাংলাদেশকে ব্রেক থ্রু এনে দেন শেখ মেহেদী। দলীয় ২০ রানে ১৫ বলে ১৪ রান করে আউট হন মিচেল। 

এরপর জিমি নিশামকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাট করতে থাকেন চ্যাপম্যান। তবে ভয়ংকর হয়ে ওঠার আগেই চ্যাপম্যানকে আউট করেন লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন। দলীয় ৫০ রানে ১৯ বলে ১৯ রান করে আউট হন এই ব্যাটার।

এরপর মিচেল স্যান্টনার ও নিশাম মিলে কিছুটা আগ্রসী ব্যাটিং করতে থাকেন। এই দুই ব্যাটার মিলে ৪১ রানের জুটি গড়েন। তবে দলীয় ৯১ রানে ২২ বলে ২৩ রান করে আউট হন স্যান্টনার। 

স্যান্টনারের বিদায়ের পর সাজঘরে ফিরে যান নিশাম। দলীয় ১১০ রানে ২৯ বলে ৪৮ রান করে সাজঘরে ফিরে যান তিনি।এরপর দ্রতই আউট হন টিম সাউদি। দলীয় ১২৪ রানে ১০ বলে ৮ রান করে ফিরে যান তিনি।

ইনিংসের শেষ ওভারে এসে ইশ সোধিকে সাজঘরে ফেরান তানজিম সাকিব। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশের পক্ষে শরিফুল নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া মুস্তাফিজ ও শেখ মেহেদী নেন ২টি করে উইকেট।  

এএইচ