ঢাকা, শনিবার   ১৩ জুলাই ২০২৪,   আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৯:৪৬ এএম, ২৫ মে ২০২৪ শনিবার | আপডেট: ০৯:৪৭ এএম, ২৫ মে ২০২৪ শনিবার

স্বজনদের আহাজারি

স্বজনদের আহাজারি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে শিউলী আক্তার (৪৫) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। 

শুক্রবার দুপুরে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে নাসিরনগর থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে নাসিরনগর উপজেলা সদরের পশ্চিমপাড়ায়। 

শিউলী আক্তার দুবাই প্রবাসী আবদুর রহমানের স্ত্রী। 

পরিবার ও  স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৮ বছর পূর্বে নাসিরনগর সদর ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়ার মৃত শওকত আলীর ছেলে আবদুর রহমানের সাথে শিউলী আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর প্রবাসে চলেন যান স্বামী আবদুর রহমান। বিয়ের পর থেকে শিউলী একাই থাকতেন স্বামীর বাড়িতে। 

ঘটনার আগের দিন তার একমাত্র মেয়ে চাদঁনী নানার বাড়ি পূর্বভাগে বেড়াতে যায়। সকাল ১০টার দিকে বাড়িতে একজন দুধ দিতে আসে। ডাকাডাকি করে তার কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীদের জানালে স্থানীয়রা বাড়ির প্রধান ফটক বন্ধ থাকায় বাড়ি দেয়াল টপকে ভেতরে গিয়ে ৩টি দরজার মধ্যে একটি খোলা দেখতে পান। 

পরে স্থানীয় লোকজন ভেতরে প্রবেশ করে দেখেন শিউলির মরদেহ মেঝেতে পড়ে রয়েছে। এসময় তার মুখ ও নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। 

সংবাদ পেয়ে নাসিরনগর থানা পুলিশ শিউলীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। 

নিহতের ভাই লোকমান মিয়া জানান, আমার বোন রাতে ঘরে একা ছিল। ঘটনার খবর পেয়ে ঘরে গিয়ে দেখতে পাই বোনের মরদেহ খাটের পাশে মেঝেতে পড়ে আছে। এ সময় তার নাক ও মুখে রক্তের দাগ দেখা যায়। আমাদের কাছে এটি হত্যা মনে হচ্ছে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত চাই। যাতে এই রহস্যজনক মৃত্যুর কারণ বেড়িয়ে আসে। 

এ বিষয়ে নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সোহাগ রানা বলেন, শিউলি আক্তারের মরদেহে বড় ধরণের কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ আসেনি। মরদেহ ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। 

এএইচ