ঢাকা, রবিবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২,   আশ্বিন ৯ ১৪২৯

ভাড়া বাড়াতে বিআরটিএতে বৈঠকে বাস মালিকরা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:২১ পিএম, ৬ আগস্ট ২০২২ শনিবার | আপডেট: ০৯:৪০ পিএম, ৬ আগস্ট ২০২২ শনিবার

জ্বালানি তেলের দাম মূল্যবৃদ্ধির ফলে বাসভাড়া বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন পরিবহন মালিকরা। 

শনিবার (৬ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বৈঠকটি শুরু হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করছেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার। তার সঙ্গে সড়ক ও পরিবহন মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নূরীও আছেন।

এছাড়াও বৈঠকে উপস্থিত আছেন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েতুল্লাহ, সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী, ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক ও পরিবহন শ্রমিক নেতারা। পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারাও আছেন এই বৈঠকে।

এদিকে পরিবহন মালিক সূত্রে জানা যায়, শুধু যে তেলের দাম বাড়ানোর কারণে ভাড়া বাড়বে, বিষয়টি এমন নয়। কেননা পরিবহন পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় বেড়েছে, এ ছাড়া পরিবহন যন্ত্রাংশের দামও বেড়েছে। তাই সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর বিষয়টি যৌক্তিক মনে করছেন বাস মালিকরা।

তবে বিআরটিএ ও বাস মালিকদের দরকষাকষিতে ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়টি ২৫ শতাংশে স্থির হতে পারে বলে আভাস মিলেছে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি), ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেডে (ইআরএল) পরিশোধিত এবং আমদানি/ক্রয় করা ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের মূল্য সমন্বয় করে ভোক্তা পর্যায়ে পুনর্নির্ধারণ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের ভেতর ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মূল্য ডিজেল ১১৪ টাকা প্রতি লিটার, কেরোসিন ১১৪ টাকা প্রতি লিটার, অকটেন ১৩৫ টাকা প্রতি লিটার ও পেট্রোল ১৩০ টাকা প্রতি লিটার হবে। শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকে কার্যকরের কথা বলা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

আগে ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মূল্য ছিল প্রতি লিটার ডিজেল ৮০ টাকা, কেরোসিন ৮০ টাকা, অকটেন ৮৯ টাকা ও পেট্রোল ৮৬ টাকা।

সর্বশেষ গত বছরে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর পর দূরপাল্লার বাসের ভাড়া ২৭ শতাংশ এবং ঢাকায় ২৬ দশমিক ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়।

তখন দূরপাল্লার বাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৪২ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১ টাকা ৮০ পয়সা করা হয়। মহানগরীতে বিভিন্ন রুটের বাস ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৭০ পয়সা থেকে করা হয় ২ টাকা ১৫ পয়সা।

মিনিবাসের ক্ষেত্রে ১ টাকা ৬০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ৫ পয়সা করা হয়েছিল তখন।

এমএম/