ঢাকা, শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬

আখের রসের গুণাগুণ

প্রকাশিত : ১১:৩৫ এএম, ১ অক্টোবর ২০১৭ রবিবার

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য আখ খুবই উপকারী। গরম কিংবা শীত যে কোনো ঋতুতেই পাওয়া যায় আখ। এতে খনিজ, সামান্য পরিমাণে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, আয়রন, ভিটামিন প্রভৃতি উপাদান রয়েছে, যা শরীরের জন্য উপকারী।

এক গ্লাস আখের রস খেলেই ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। এ কারণে আখের রসকে প্রাকৃতিক এনার্জি ড্রিঙ্কও বলা হয়। শুধু ক্লান্তি দূর করতে নয়, বরং ত্বকের জন্যও এটি সমান কার্যকরী।

আখের রস খেতে মিষ্টি হলেও তা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অনেক কার্যকরী। এতে জিআই-এর পরিমাণ খুব কম থাকে। তাই ডায়াবেটিস রোগীরা নিয়মিত আখ খেতে পারেন। এছাড়া আখের রসের আরও নানা গুণ রয়েছে। এগুলো নিম্নরুপ-

হৃদরোগ উপশমে

আখের রস হার্ট ভালো রাখার পাশাপাশি হার্ট অ্যাটাক রুখতেও সাহায্য করে। এছাড়া শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের নিঃসরণ কমাতেও ভূমিকা রাখে এটি।

হজমশক্তি

আখের রসে পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাসিয়াম এবং ফাইবার রয়েছে। এটি খেলে কোষ্ঠ কাঠিন্যের সমস্যা দূর হওয়ার পাশাপাশি হজম শক্তিও বেড়ে যায়।

ওজন  কমায়

আখের রসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকায় তা ওজন কমাতে সাহায্য করে। এমনকি কোলেস্টেরলের পরিমাণও কমিয়ে আনতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এটি।

ক্যান্সার প্রতিরোধে

আখের রসে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, আয়রন, ম্যাঙ্গানিজ থাকে। যা ব্রেস্ট ক্যানসার এবং প্রস্টেড ক্যানসার রোগ প্রতিরোধে সক্ষম।

ত্বকের জন্য উপকারী

আখের রসে আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড থাকায় তা ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। মুখের ব্রণ, বলিরেখা দূর করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এটি। আখের রস যদি মুখে মাস্ক হিসেবে লাগিয়ে রাখা যায় তাহলে ত্বকের রুক্ষতা দূর হয়ে যায়। সেইসঙ্গে ত্বক হয়ে উঠে আরও বেশি উজ্জ্বল ও সতেজ।

এছাড়া ঠাণ্ডা-জ্বর, গলায় ক্ষত, দাঁতের ক্ষয়রোধ প্রভৃতি সারাতে সাহায্য করে আখের রস। শুধু তাই নয়, এটি জন্ডিসে ওষুধের ভূমিকা পালন করে। কাজেই সুস্থ থাকতে নিয়মিত আখের রস পান করুন। সূত্র:এবেলা

/এম/এআর