ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

নদীবন্দরগুলো অচল হয়ে পড়েছে নৌ-ধর্মঘটে

প্রকাশিত : ০৩:১৩ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৬ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৩:১৩ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৬ বৃহস্পতিবার

নৌ-ধর্মঘটে অচল হয়ে পড়েছে দেশের নদীবন্দরগুলো। আটকা পড়েছে মালবাহী কার্গো জাহাজ। এত করে বন্ধ হয়ে গেছে পণ্য পরিবহনের কাজ। লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। ধর্মঘটের প্রভাবে চট্টগ্রাম বন্দরেও দেখা দিয়েছে স্থবিরতা। কার্গো থেকে মাল খালাস করতে না পারায় লোকসানে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। গত বেশ কিছুদিন ধরেই ন্যুনতম ১০ হাজার টাকা মজুরী নির্ধারণের দাবি জানিয়ে আসছিলো নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। এই দাবিসহ আরো ১৫দফা দাবি আদায়ে বুধবার রাত থেকেই ধর্মঘটে যায় নৌ শ্রমিকরা। বরিশাল থেকে সব রুটেই বন্ধ রয়েছে লঞ্চ চলাচল। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। শুধু যাত্রীবাহী লঞ্চই নয় পণ্যবাহী নৌযান ও অয়েল ট্যাঙ্কার চলাচলও বন্ধ রয়েছে। নৌধর্মঘটে চ্ধসঢ়;ট্ধসঢ়;গ্রাম বন্দরে নেমে এসছে স্থবিরতা। বন্দরে লাইটারেজ জাহাজে পণ্য উঠানামার কাজ বন্ধ রয়েছে। সকাল থেকে মাঝিরঘাটসহ ১৬টি ঘাট এলাকায় শ্রমিকরা মালামাল উঠানামার কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে। দাবী না মানা পর্যন্ত এ ধর্মঘট চলবে বলে জানিয়েছেন তারা। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ নৌবন্দরে আটকা পড়েছে প্রায় অর্ধশত মালবাহী কার্গো জাহাজ। মালামাল খালাস করতে না পারায় ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগ বেড়েছে। আশুগঞ্জের সঙ্গে সিলেট, কিশোরগঞ্জ, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১৪ উপজেলার লঞ্চ যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।