ঢাকা, বুধবার   ১৫ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭

লাল গ্রহের রহস্য উন্মোচনে নাসার মহাকাশযান প্রেরণ

প্রকাশিত : ০৩:০৯ পিএম, ৫ মে ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০৩:০৯ পিএম, ৫ মে ২০১৮ শনিবার

দীর্ঘদিনের প্রতিক্ষীত মঙ্গল গ্রহের লাল আভা শনাক্তকরণ ও এ বিষয়ে অধিকতর জানতে মহাকাশযান প্রেরণ করছে নাসা। আজ শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের নাসা থেকে এই মহাকাশযানটি প্রেরণ করার কথা রয়েছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে ইনসাইট।

ইনসাইটের মাধ্যমে মঙ্গল গ্রহের গভীর অংশ পর্যালোচনা করা হবে। আর এর মাধ্যমে চন্দ্র-সূর্যসহ সৌরজগতের অন্যগ্রহগুলো কিভাবে গঠিত হয়েছে তা পরীক্ষা করা হবে।
ক্যালিফোর্নিয়ার ভ্যানডারবার্গ থেকে স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ৫ মিনিটে এটি প্রেরণ করা হবে।

তবে কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়া মহাকাশ যানটি প্রেরণে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। গত শুক্রবার নাসার নিরাপত্তা কর্মীরা জানিয়েছেন, আবহাওয়া অনুকূলে না থাকার যে দৃশ্য দেখা যাচ্ছে, আশা করা হচ্ছে, তা দ্রুতই কেটে যাবে।

৯৯৩ মিলিয়ন ডলার খরচ হওয়া এ প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য মঙ্গল গ্রহ সম্পর্কে মানুষের জ্ঞানের বিস্তার। এর মাধ্যমে জানার চেষ্টা করা হবে শত শত কোটি বছর আগে পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়েছিল। কিভাবে মহাজগত সৃষ্টি হয়েছিল। কিভাবে গ্রহগুলো পরষ্পর থেকে দূরে সরে যাচ্ছে, তা জানার চেষ্টা করা হবে। যদি কোনো ধরণের বাধাহীনভাবে মহাকাশযানটি চলতে পারে তাহলে আগামী ২৬ নভেম্বর এটি লাল গ্রহে পৌঁছতে পারবে।

ইনসাইটের পূর্ণ নাম ইন্টেরিয়র এক্সপ্লোরেশন ইউজিং সিসমিক ইনভেস্টিগেশন, জিওডেসি এন্ড হিট ট্রান্সপোর্ট। নাসার প্রধান বিজ্ঞানী জিম গ্রীন জানিয়েছেন, গবেষকরা ইতোমধ্যে জেনেছেনে যে মঙ্গলগ্রহে প্রবল পরিমাণ ভূমিকম্প হয়। কিন্তু মঙ্গলগ্রহ কেন ভূমিকম্প প্রবণ তা জানতেই এই মহাকাশযান প্রেরণ করা হয়েছে। আর এটা জানা আমাদের খুব জরুরি।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া
এমজে/