ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৮ ১৪২৬

তরল দুধের ৯৬ নমুনার ৯৩টিতে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৭:৩২ পিএম, ৮ মে ২০১৯ বুধবার | আপডেট: ০৯:০৮ পিএম, ৮ মে ২০১৯ বুধবার

বাজারের তরল দুধের ৯৬টির নমুনা পরীক্ষা করে ৯৩টিতে সীসাসহ মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া পাওয়া গেছে বলে হাইকোর্টকে জানিয়েছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। বিচারপতি বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের বেঞ্চ দুধে বিষাক্ত বস্তু মেশানোর সাথে যারা জড়িত তাদের চিহ্নিত করে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেন। এদিকে রাজধানী ঢাকার কোন কোন এলাকায় ওয়াসার পানি বেশি দূষিত তার তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্টের অপর একটি বেঞ্চ।

বাজারে তরল দুধে ও দইয়ে মাত্রাতিরিক্ত সিসা অ্যান্টোবায়োটিক এবং মানবস্বাস্থ্যোর জন্য ক্ষতিকর কীটনাশকের উপাদান থাকার বিষয়টি উঠে আসে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের অধীনে ন্যাশনাল ফুড সেফটির গবেষণায়।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে আনলে ক্ষোভ প্রকাশ করে গত ১১ ই ফেব্রুয়ারি স্বপ্রনোদিত রুল জারি করেন হাইকোর্ট বেঞ্চ। খাদ্যে কি পরিমান ক্ষতিকর সীসা ও কীটনাশক রয়েছে তা নির্ধারণ করার নির্দেশও দেন।

এরই ধারাবাহিকতা মঙ্গলবার নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তর প্রতিবেদন জমা দেয় হাইকোর্টে। রিপোর্টে বলা হয়, প্যাকেটজাত তরল দুধের ৩১টির মধ্যে ১৮টিতে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর উপাদান রয়েছে। আর দইয়ে পাওয়া গেছে ক্ষতিকর উপাদান।

দুধে বিষাক্ত বস্তু মেশানোর সাথে যারা জড়িত তাদের চিহ্নিত করে রিপোর্ট দিতে বলেছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ১৫ মে দিন ঠিক করেছেন আদালত।

এদিকে হাইকোর্টের অপর একটি বেঞ্চ ঢাকার কোন কোন এলাকায় ওয়াসার পানি বেশি দূষিত তার তালিকা চান।

বুধবার পানি পরীক্ষা করে হাইকোর্টে দাখিল করার কথা থাকলেও ওয়াসা জানিয়েছে, তাদের ৩টি ল্যাবে একযোগে এই পরীক্ষা করলেও ৩ মাস সময় প্রয়োজন।