ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ৩ ১৪২৬

ওআইসির সমালোচনায় তসলিমা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৩৭ এএম, ৩ জুন ২০১৯ সোমবার | আপডেট: ১০:৩৮ এএম, ৩ জুন ২০১৯ সোমবার

অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশানের (ওআইসি) সমালোচনা করেছেন ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

গতকাল রোববার রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে ওআইসি নিয়ে সমালোচনা করেন তিনি।

স্ট্যাটাসে তসলিমা লেখেন, ‘ও আই সি। অরগানাইজেশান অফ ইসলামিক কোঅপারেশান। এইটা আবার কী জাতের অরগানাইজেশান? আমি তো কোনও অরগানাইজেশান অফ ক্রিশ্চান কোঅপারেশান বা অরগানাইজেশান অফ জুইশ কোঅপারেশান বা এই ধরণের কোনও সংস্থার নাম শুনিনি। যদি থাকেও এই ধরনের সংস্থা তবে সেগুলো নিতান্তই ক্ষুদ্র, নিতান্তই রক্ষণশীল, নিতান্তই অনাধুনিক,অবহেলাযোগ্য।

আমরা সবাই অবিজ্ঞান মানি,আজগুবি রূপকথা মানি, আমরা অসভ্য, আমরা বর্বর, আমরা নারীবিরোধী, আমরা মানবতাবিরোধী আমরা গণতন্ত্রবিরোধী আমরা বাকস্বাধীনতাবিরোধী সুতরাং চলো আমরা মিলিত হই এবং পরস্পরকে সাহায্য করি, ব্যাপারটা একজাক্টলি তাই।

সভ্য হতে হলে এইসব ধর্মীয় লেবাস, ধর্মীয় ভাইবেরাদরি ত্যাগ করতে হবে। সভ্য হতে হলে ধর্মকে সবার আগে দূরে সরাতে হয়, তারপর ব্যাক্তির সমাজের রাষ্ট্রের সার্বিক উন্নতির জন্য কাজ করতে হয়। সভ্য হতে হলে গণতন্ত্র, বাক স্বাধীনতা, মানবাধিকার, নারীর সমান অধিকার, শিশুর অধিকার, পশুপাখির অধিকারকে রক্ষা করতে হয় ,পৃথিবীকে সবার জন্য বাসযোগ্য করতে হয়, সবার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্বাধীনতাকে সবার ওপরে স্থান দিতে হয়।

ধর্মের সঙ্গে সভ্যতার বিরোধ চিরকালের। নানা ছুতোছাতায় পেছনে দৌড়োলে সত্যিকার লাভ কিছু হয় না। কিছু একটা পাওয়ার আশায় সভ্যতাবিরোধীদের সঙ্গে আঁতাত করেও সত্যিকার লাভ কিছু হয় না ‘