ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯,   পৌষ ১ ১৪২৬

শিল্পকলায় ‘জয়তুন বিবির পালা’ মঞ্চস্থ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৪৪ পিএম, ২২ জুন ২০১৯ শনিবার

‘আন্তজার্তিক, জাতীয় ও ব্রাত্যজনীন থিয়েটারের পারস্পরিক বিনিময়’ শীর্ষক সেমিনার এবং ‘জয়তুন বিবির পালা’ মঞ্চস্থ হয়েছে।

শনিবার দুপুর তিনটায় উৎসবের তৃতীয় দিন জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় ‘আন্তজার্তিক, জাতীয় ও ব্রাত্যজনীন থিয়েটারের পারস্পরিক বিনিময়’ শীর্ষক সেমিনার।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক শফি আহমদ, সহ-সভাপতি, আই.টি.আই বাংলাদেশ কেন্দ্র। তিনি ‘সাব-অল্ট্রার্ণ’ এর পরিভাষা হিসেবে ‘ব্রাত্যজন’ ব্যবহার করেন এবং বাংলাদেশের বর্তমান প্রযোজনা প্রবণতা ব্যাখা করেন। এছাড়া মূল আলোচনার বিষয়ে সমকালীন আন্তজার্তিক থিয়েটারের আটজন বিশেষজ্ঞের মতামত তুলে ধরেন।

সেমিনারে উক্ত বিষয়ে বক্তব্য রাখেন, ভারতীয় নাট্য বিশেষজ্ঞ অংশুমান ভৌমিক, চীনের নাট্যব্যক্তিত্ব অধ্যাপক সু চু পং, নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, জাহিদ রিপন, মান্নান হীরা, কামাল উদ্দীন কবির, মফিদুল হক, আশিষ খন্দকার এবং পূজা সেনগুপ্ত।

সমাপণী বক্তব্য দেন অধ্যাপক আবদুস সেলিম। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেনে আই.টি.আই বাংলাদেশ কেন্দ্রের সভাপতি নাসিরউদ্দীন ইউসুফ।

সন্ধ্যা সাতটায় জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে অন্বেষা থিয়েটার মঞ্চস্থ করে নাটক ‘জয়তুন বিবির পালা’ রচনা ও নির্দেশনা সায়িক সিদ্দিকী। ময়মনসিংহ গীতিকার ছায়া অবলম্বনে ভাগ্যবিড়ম্বিত রাজপুত্র গহরচান ও জয়তুন বিবির বিরহ গাথাঁ বাংলাদেশের জনপ্রিয় পালা আঙ্গিকে মঞ্চায়ন করে অন্বেষা থিয়েটার। আগামীকাল ২৩ জুন জাতীয় নাট্যশালা মূল হলে মঞ্চস্থ হবে জোহো থিয়েটার (চীন)-এর এফ সিকে।

কেআই/