ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬

মানুষের মাথা ও পদ্মা সেতু নিয়ে অপপ্রচার দণ্ডনীয় অপরাধ: কর্তৃপক্ষ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৫৩ পিএম, ৯ জুলাই ২০১৯ মঙ্গলবার | আপডেট: ১১:০৩ এএম, ১০ জুলাই ২০১৯ বুধবার

‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে’ বলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে এর প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক স্মারকে এই প্রতিবাদ জানানো হয়।

প্রতিবাদ লিপিতে এ ধরনের অপপ্রচারকে দণ্ডনীয় অপরাধ বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। এ ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য দেশবাসীকে অনুরোধ করা হয়েছে।

স্মারকপত্রে বলা হয়েছে, ‘পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে বলে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার চালাচ্ছে তা প্রকল্প কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে। আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এটি একটি গুজব। এর কোনও সত্যতা নেই। এসব অপপ্রচার আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য দেশবাসীকে অনুরোধ করা হচ্ছে।’

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। মূল সেতুর ২৯৪ টি পাইলের মধ্যে ২৯২টি শেষ হয়েছে। ৪২টি পিয়ারের মধ্যে ইতোমধ্যে ৩০টি পিয়ারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এ পর্যন্ত ১৪টি স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে—যা এখন দৃশ্যমান। ৩০ জুন পর্যন্ত মূল সেতুর ৮১ শতাংশ, নদীশাসন কাজের অগ্রগতি ৫৯ শতাংশ এবং প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৭১ শতাংশ শেষ হয়েছে।

এনএম/এসি