ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ৩ ১৪২৬

খেজুরের ৬ স্বাস্থ্য উপকারিতা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:৪৮ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার | আপডেট: ০৩:৪৯ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার

খেজুর পুষ্টিগুণে ভরপুর। প্রতি ১০০ গ্রাম খেজুরে ০.০৯ গ্রাম আয়রন থাকে। পুষ্টিবিদদের মতে, শরীরের প্রয়োজনীয় আয়রনের অনেকটাই এই খেজুর থেকে পাওয়া যায়। তাই সব পুষ্টিবিদই খেজুরকে ডায়েটে রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

পুষ্টিবিদদের মতে, “সারা দিনের ডায়েটে যদি দু’টি খেজুর রাখা যায়, তাহলে তা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।’

এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক খেজুরের স্বাস্থ্যগুণ সম্পর্কে:

১) খেজুরের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন, খনিজ, ক্যালশিয়াম, পটাশিয়াম আছে। ফাইবারের জোগানও যথেষ্ট। তাই এই ফল ডায়েটে রাখতে পারলে শরীরের প্রয়োজনীয় উপাদানগুলো সহজেই পাওয়া যাবে।

২) রক্তস্বল্পতা আছে এমন রোগীর ক্ষেত্রে খেজুর খুবই প্রয়োজনীয়। একজন সুস্থ মানুষের শরীরে যতটুকু আয়রন প্রয়োজন, তার প্রায় ১১ ভাগ পূরণ করে খেজুর।

৩) চিনির অন্যতম সেরা বিকল্প খেজুরের রস ও গুড়। আজকাল খেজুরের গুঁড়কেও চিনির পরিবর্তে ব্যবহার করা হয়। তাই চিনির ক্ষতি এড়াতে খেজুর ব্যবহার করতেই পারেন।

৪) খেজুরে থাকা নানা খনিজ হৃদস্পন্দনের হার ঠিক রাখতে সাহায্য করে। তাই হার্টের স্বাস্থ্যের পক্ষে এই ফল উপকারী।

৫) খেজুরে থাকা সোডিয়াম রক্তের চাপকে নিয়ন্ত্রণ করে। তাই উচ্চ রক্তচাপের রোগীর ডায়াটে খেজুর রাখা উচিত।

৬) খেজুরে লিউটেন ও জিক্সাথিন থাকায় তা রেটিনার স্বাস্থ্যকে ভাল রাখে।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার

এমএইচ/