ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ৩ ১৪২৬

এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম ডেঙ্গু রোগী ভর্তি 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:০৭ পিএম, ৩১ আগস্ট ২০১৯ শনিবার

সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমে আসছে। ফলে দেশের হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগীর ভর্তি সংখ্যাও কমেছে। শনিবার সকাল আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায়  দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ৭৬০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন, যা গত এক মাসে সবচেয়ে কম। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ভর্তি এই রোগীদের মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ৩৪৯ জন এবং ঢাকার বাইরে ৪১১ জন। 

ঠিক এক মাস আগে ৩১ জুলাই ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ১৫৬২ জন। আর এই এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দুই হাজার ৪২৮ জন ডেঙ্গু রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন গত ৭ অগাস্ট। ২১ অগাস্টের পর থেকে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

সরকারি হিসাবে, চলতি বছর এপ্রিলে ৫৮ জন, মে মাসে ১৯৩ জন, জুনে ১৮৮৪ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। জুলাই মাসে তা এক লাফে ১৬ হাজার ২৫৩ জনে পৌঁছায়। অগাস্টে রোগীর সংখ্যা জুলাইয়ের তিন গুণেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়ে ৫১ হাজার ৭৩৪ জন হয়েছে।

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমতে থাকার এই প্রবণতার বিষয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত  হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নতুন রোগীর সংখ্যা আগের তুলনায় কমে আসছে। এতে বোঝা যাচ্ছে সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকপ কমতে শুরু করেছে।

তবে গত শনিবারও নতুন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কম ছিল। ওইদিন এক হাজার ১৭৯ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তার আগের দিন ভর্তি হন ১৪৪৬ জন। গত শনিবারের পর রোগী ভর্তির সংখ্যা কিছুটা বেড়ে রোববার ভর্তি হয়েছিলেন ১২৯৯ জন, সোমবার ১২৫১ জন এবং মঙ্গলবার ১২৯৯ জন। 

এ বছর ডেঙ্গু জ্বরে এখন পর্যন্ত ৯৬টি মৃত্যুর ঘটনার মধ্যে ৫৭ জনের মৃত্যু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তাদের ‘ডেথ রিভিউ’ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিশ্চিত করেছে।

চলতি বছর এ পর্যন্ত মোট ৭০ হাজার ১৯৫ জন ডেঙ্গু রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে অগাস্টেই ভর্তি হয়েছেন ৬৫ হাজার ১৫০ জন। এখন সারা দেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ৪৮৬০ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন আছেন।