ঢাকা, রবিবার   ১২ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২৭ ১৪২৭

নালিশের রাজনীতি ছেড়ে গণরাজনীতিতে আসুন: কাদের 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১৪ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিএনপির মাঝে অভিযোগ নামক রোগ পেয়ে বসেছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি নেতারা কথায় কথায় অভিযোগ আর নালিশ করে। তাদেরকে এই নালিশের রাজনীতি ছেড়ে গণরাজনীতিতে আসতে হবে। 

শুক্রবার সকালে বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে রাজধানীর বনানীতে তার কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি আন্দোলনের কোনো ইস্যু না পেয়ে অভিযোগ আর নালিশের পথ বেছে নিয়েছে। এছাড়া তো তাদের আর কিছু করার নেই। আমরা চাই তারা ইতিবাচক রাজনীতিতে ফিরে আসুক। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নেতারা সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে। কিন্তু, দায়িত্বশীল বিরোধীদল হিসেবে দায়িত্বজ্ঞানহীন সব কর্মকাণ্ডই করছে তারা। নির্বাচন ও আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে, এখন ইস্যু খুঁজে বেড়াচ্ছে। কোনো একটা ইস্যু পেলেই তারা তার মধ্যে রাজনীতি খুঁজে পায়। এমনিভাবে নিরাপদ সড়ক ও আবরার হত্যার ঘটনায়ও তারা ইস্যু খোঁজার চেষ্টা করেছিল বলেও মন্তব্য করেন কাদের। 

যুবলীগ চেয়ারম্যানের গণভবনে যাওয়া নিষেধের বিষয়ে তিনি বলেন, রোববারের ওই মিটিং ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে কাকে ডাকবেন আর কাকে ডাকবেন না তা শুধু প্রধানমন্ত্রী জানেন। এটা পার্টি অফিসে হলে আমি বলতে পারতাম। আওয়ামী লীগ সভাপতি যুবলীগকে গণভবনে ডেকেছেন, সেখানে যাদেরকে ডাকা হয়েছে তারাই মিটিংয়ে যাবেন। 

যুবলীগের নেতৃত্বে বয়সের ব্যাপারে সেতুমন্ত্রী বলেন, রোববারের মিটিংয়ে এ নিয়ে আলোচনা হবে।
 
প্রসঙ্গত, শীর্ষ কয়েকজন নেতার বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে ইমেজ সংকটে পড়েছে দেশের প্রথম যুব সংগঠন বাংলাদেশ যুবলীগ। দলের সর্বনিম্ন পর্যায় থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত তাদের ওপর ক্ষুব্ধ। 

প্রশ্নে উঠেছে যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর ভূমিকা নিয়েও। ফলে, যুবলীগের নেতৃত্ব নিয়ে নতুন করে ভাবতে হচ্ছে দলটিকে।

হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে এবার সতর্কতার সঙ্গে এগোতে চায় দলটি। সে জন্য বেশকিছু পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়ে যুবলীগের বিষয়ে নতুন করে নির্দেশনা আসছে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে। আগামী রোববার প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা যুবলীগের সম্মেলনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিবেন। ওই দিনই বিকেলে গণভবনে যুবলীগের নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী। 

আই/