ঢাকা, বুধবার   ১৫ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭

হার্টে জন্মগত ত্রুটি থাকলে যেসব লক্ষণ প্রকাশ পায়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৪৫ এএম, ২৪ অক্টোবর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

পৃথিবীতে প্রতি এক হাজার শিশুর আটজন হার্টের ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহণ করে। জন্মগত সাধারণ ত্রুটিগুলোর মধ্যে হার্টের ত্রুটি হলো একটি। হৃৎপিণ্ডের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত স্বাভাবিক রক্ত চলাচল বদল করে দেয় হার্টের জন্মগত ত্রুটি।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলেন, হৃৎপিণ্ডের জন্মগত ত্রুটির অনেকগুলোই সাধারণ। তেমন কোনো চিকিৎসা লাগে না অথবা সহজেই ঠিক করা যায়। তবে কিছু শিশু জটিল ত্রুটি নিয়েও জন্ম নেয়। এসব ত্রুটির জন্য সঠিক চিকিৎসা করতে হয় জন্মের পর পরই।

কম গুরুতর হৃৎপিণ্ডের জন্মগত ত্রুটি অনেক সময় শৈশবের শেষ প্রান্তে ধরা পড়ে। তখন কিছু লক্ষণ পরিস্ফুট হয়। এবার সেই লক্ষণ সম্পর্কে জানা যাক-

* খেলাধূলা বা কাজের সময় শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়।

* বেশিভাগ সময় শরীর ক্লান্ত থাকে।

* মাঝে মাঝে জ্ঞান হারাতে পারে।

* হাত, পা ও গোড়ালি ফুলে যেতে পারে।

গুরুতর জন্মগত ত্রুটিগুলোর লক্ষণ সাধারণত জন্মের পরপরই পরিস্ফুট হয় অথবা জন্মের কয়েক মাস পর দেখা দিতে পারে। ওই সময় যে লক্ষণগুলো প্রকাশ পায়তা হলো-

* চামড়া ফ্যাকাশে অথবা নীল রং ধারণ করতে পারে।

* ঘন ঘন শ্বাস নেওয়ার প্রবণতা দেখা দিতে পারে।

* পা, পেট ও চোখের চারপাশ ফুলে যেতে পারে।

* এদের ওজন স্বাভাবিকতার চেয়ে কম থাকবে।

মনে রাখবেন, হৃৎপিণ্ডের জন্মগত ত্রুটিতে কোনো রকম বুকে ব্যথা বা অন্য কোনো ব্যথার লক্ষণ থাকে না। তাই উপরের লক্ষণগুলো দেখলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

এএইচ/