ঢাকা, সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে খোকা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৩৯ এএম, ২ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা। তার বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছেন চিকিৎসকরা। যে কোনো মুহূর্তে না ফেরার দেশে চলে যেতে পারেন তিনি। 

এ বিষয়ে খোকার বড় ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন বলেন, ফুসফুসে ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়ায় তার বাবার জীবন বিপন্নপ্রায়। তিনি ৯০ শতাংশ অক্সিজেন-সাপোর্ট নিয়ে বেঁচে আছেন।

ইশরাক জানান, এ পরিস্থিতিতে তাদের পরিবার বেশ দুশ্চিন্তায় রয়েছে। তার বাবা ইন্তেকাল করলে কীভাবে মরদেহ দেশে আনা হবে তা নিয়ে তাদের উদ্বেগ বাড়ছে। তবে তারা দুয়েক দিনের মধ্যে বাংলাদেশ কনস্যুলেটে পরিবারের জন্য ট্রাভেল ডকুমেন্টস চাইবেন। 

নিউইয়র্কের একটি ক্যান্সার হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।  হাসপাতালে খোকার পাশে রয়েছেন তার স্ত্রী, মেয়ে সারিকা সাদেক, ছেলে ইশরাক হোসেন, ইশফাক হোসেন এবং যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এদিকে মাতৃভূমিতে নিজের অন্তিম শয্যা পেতে আকুতি জানিয়েছেন খোকা। খোকার মৃত্যু হলে তার মরদেহ দেশে আনার বিষয়টি জটিল হবে। কারণ বাংলাদেশের পাসপোর্ট নেই তার। এ পরিস্থিতিতে চিন্তিত খোকার পরিবার।

দলীয় ও পারিবারিক সূত্র জানায়, ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে যান খোকা। ২০১৭ সালের শেষদিকে খোকা এবং তার স্ত্রী ইসমত হোসেনের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। তারা বাংলাদেশ কনস্যুলেটে পাসপোর্ট নবায়ন বা নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেন। তবে দীর্ঘদিনেও পাসপোর্ট না পাওয়ায় তিনি যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেন। সেই আবেদন এখনও নিষ্পত্তি হয়নি।