ঢাকা, শনিবার   ০৬ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

মুমিনুলদের লজ্জার দিনে বাঁহাতি তরুণের নয়া ইতিহাস

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:৫৪ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

মোলভীবাজারের তরুণ রুয়েল মিয়া

মোলভীবাজারের তরুণ রুয়েল মিয়া

ইন্দোরে ভারতীয় বোলিং আক্রমণের সামনে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের রীতিমত কাঁপাকাঁপি চিত্র দেখা গেছে। যাতে, ইনিংস ও ১৩০ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাজয় দেখতে হয়েছে মুমিনুল হকদের। জাতীয় দলের এমন অসহায় দিনে ভারতের ইমার্জিং টিমকে উড়িয়ে দিয়েছে সৌম্য-শান্তরা। তবে, এসব কিছুকে ছাপিয়ে জাতীয় লিগে বল হাতে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করলেন ১৮ বছরের এক তরুণ।

আজ শনিবার (১৬ নভেম্বর) বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে বল হাতে রীতিমত আগুন ঝরিয়েছেন রুয়েল মিয়া। মাত্র দুটি ফাস্ট ক্লাস ম্যাচ, আর তিনটি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলা ১৮ বছরের এ তরুণ আজ তৃতীয় প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলতে নেমেই সবাইকে মুগ্ধ করেন। 

এদিন বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে জাতীয় লিগের চতুর্থ রাউন্ডে চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে মাত্র ২৬ রানে আট উইকেট তুলে নিয়েছেন মৌলভি বাজারের রুয়েল। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে গত সাত বছরে কোন বাংলাদেশির যা সেরা বোলিং।

মাত্র ১৪ ওভার ১ বল হাত ঘুরিয়ে চার মেডেনে ২৬ রানে ৮ উইকেট নেন রুয়েল। এর মধ্যে চার ব্যাটসম্যানকে করেছেন সরাসরি বোল্ড, একজনকে এলবিডব্লিউ। বাকি তিন জনের দুই জনকে উইকেটরক্ষকের ক্যাচ বানিয়েছেন রুয়েল। দৃষ্টিনন্দন ফাস্ট বোলিং বলতে যা বোঝায়, বগুড়ায় আজ ঠিক সেটাই করে দেখিয়েছেন তরুণ এই পেসার।
 
আর রুয়েলের পেস তোপে মাত্র ১০৬ রানেই গুটিয়ে গেছে চট্টগ্রামের প্রথম ইনিংস। বন্দর নগরীর দলটির হয়ে ইনিংসে সর্বোচ্চ ২১ রান করে করেছেন ইরফান শুক্কুর ও তাসামুল হক। এছাড়া সাজ্জাদুল হকের ব্যাট থেকে এসেছে ১৪ রান।

এর আগে ২০১২ সালে ঢাকা মেট্রোর হয়ে রংপুর বিভাগের বিপক্ষে ৩৫ রানে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন তালহা যুবায়ের। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এতদিন সেটাই ছিল বাংলাদেশের কোনও পেসারের এক ইনিংসে সেরা বোলিং। 
প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তৃতীয় ম্যাচ ও মাত্র দ্বিতীয় ইনিংসে বল করতে নেমেই তালহার চেয়ে কম রান দিয়ে রেকর্ডটি নিজের করে নিলেন রুয়েল। বাঁ হাতি এ পেসার প্রথম স্পেলে ২ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় স্পেলে বোলিংয়ে এসে ৬ উইকেট নেন। 

এদিকে, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশি কোনও বোলারের এক ইনিংসে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডটি সানজামুল ইসলামের। দুই বছর আগে বিসিএলে বিসিবি উত্তরাঞ্চলের হয়ে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে ৮০ রানে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন বাঁহাতি স্পিনার। 

এছাড়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ইনিংসে ৯ উইকেট নেয়ার আরও কীর্তি রয়েছে- সাকলায়েন সজীব, আবদুর রাজ্জাক ও মোশাররফ হোসেন রুবেলের।

এনএস/