ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

আদেশ পিছিয়েছে, এর মধ্যে মধ্যস্থতা নয়: গ্রামীণফোনকে আপিল বিভাগ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:৪৯ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ সোমবার

গ্রামীণফোনের কাছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের পাওনা (বিটিআরসি) ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকার বিষয়ে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আনা আবেদনের আদেশ পিছিয়ে আগামী ২৪ নভেম্বর ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ। তবে এ সময়ের মধ্যে গ্রামীণফোন অন্য কোনও ফোরামে মধ্যস্থতা করতে পারবে না বলে আদেশ দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ পরবর্তী দিন ধার্য করে আজ সোমবার এ আদেশ দেন ।
আদালতে গ্রামীণফোনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এএম আমিন উদ্দিন ও শেখ ফজলে নূর তাপস। বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন মাহবুবে আলম ও খন্দকার রেজা-ই রাকিব।

এর আগে গত ১৪ নভেম্বর শুনানি শেষে আজ ১৮ নভেম্বর আদেশের জন্য রাখা হয়েছিল। এর ধারাবাহিকতায় আজ আবেদনটি কার্যতালিকায় ছিল। বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন থাকা অবস্থায় গ্রামীণের আরবিট্রেশনের উদ্যোগের প্রসঙ্গ আজ শুনানিতে ওঠে।
প্রায় ২৭টি খাতে ১২ হাজার ৫৮০ কোটি (বিটিআরসির ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি ও এনবিআরের ৪ হাজার ৮৬ কোটি) টাকা পাওনা দাবি করে গ্রামীণফোন লিমিটেডকে গত ২ এপ্রিল চিঠি দেয় বিটিআরসি। ওই পাওনা দাবির যৌক্তিকতা নিয়ে গ্রামীণফোন নিম্ন আদালতে একটি মামলা করে ও পাওনা দাবির অর্থ আদায়ের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চায়। গত ২৮ আগস্ট ঢাকার যুগ্ম জেলা জজ প্রথম আদালত অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন নামঞ্জুর করেন। এর বিরুদ্ধে গ্রামীণফোনের পক্ষে গত ১৬ সেপ্টেম্বর উচ্চ আদালতে আপিল করা হয়। এর গ্রহণযোগ্যতার শুনানি নিয়ে গত ১৭ অক্টোবর হাইকোর্ট আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন এবং ওই অর্থ আদায়ের ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা দেন। এ আদেশ স্থগিত চেয়ে বিটিআরসি আপিল বিভাগে আবেদন করে।

এমএস/