ঢাকা, বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬

‘যুক্তরাষ্ট্রের আন্তরিকতার অভাব রয়েছে’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:৪১ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ শুক্রবার | আপডেট: ০১:৪৫ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে উত্তর কোরিয়াকে নিয়ে আলোচনাকে ‘মূর্খতাপূর্ণ কাজ’ বলে নিন্দা জানিয়েছে পিয়ংইয়ং। উত্তর কোরিয়া বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র মুখে আলোচনার কথা বললেও বিষয়টিতে তার আন্তরিকতার অভাব রয়েছে এবং দেশটি কোনও ছাড় দিতে চায় না। খবর পার্সটুডে’র।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের পক্ষ থকে দেয়া এক বিবৃতির বরাত দিয়ে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ এ খবর জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র মুখ খুললেই সংলাপের কথা বলে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, আমাদের সঙ্গে আলোচনায় বসলেও আলোচনার টেবিলে উপস্থাপনের মতো কোনও প্রস্তাব ওয়াশিংটনের কাছে নেই।

উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে সৃষ্ট কথিত হুমকি নিয়ে আলোচনা করতে গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তবে ওই বৈঠক থেকে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি একাধিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। এ ছাড়া, দেশটির হাতে রয়েছে শক্তিশালী পরমাণু অস্ত্র। পিয়ংইয়ংকে তার পরমাণু অস্ত্র ধ্বংস করতে উৎসাহিত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র সাম্প্রতিক সময়ে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সংলাপে বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে গত বছরের জুন মাসে ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে সংলাপ শুরু হয়। ওই মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন। এরপর দুই নেতা আরও দুইবার সরাসরি সাক্ষাৎ করলেও দ্বিপক্ষীয় সংলাপে তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি।

উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচিতে যে কোনও পরিবর্তন আনার আগে দেশটির ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার চায়। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র আবদার করছে, আগে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি পুরোপুরি ধ্বংস করতে হবে এবং তারপরই হবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার।

একে//