ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৫ ১৪২৬

হাওরাঞ্চলে মানুষের মন বড় তারা মুনাফিক নয়: পরিকল্পনামন্ত্রী

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৯:৫৩ পিএম, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, এদেশের ইতিহাসে কোন সরকার এত উন্নয়ন করেনি। দেশের যেদিকেই তাকাই শুধু উন্নয়ন আর উন্নয়ন। হাওরাঞ্চলের মানুষের মন বড় তারা মুনাফিক নয়। তারা উপকার যে করে তার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে জানে। তিনি আরও বলেন, একসময় এই শান্তিগঞ্জে কিছুই ছিলনা। মানুষের অনেক কষ্ট হয়েছে, কিন্তু এখন শান্তিগঞ্জের চেহারা পাল্টে গেছে, উন্নয়ন ঝলমল করছে চারিদিকে। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের আয়োজনে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ২টি ইউনিয়নের ৭শতটি পরিবারের মাঝে গভীর নলকূপ ও অফসেট -পিট ল্যাট্রিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমাদের জীবনে পানির প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। পানির অপর নাম জীবন, তবে সেটা হতে হবে নিরাপদ ও বিশুদ্ধ। পানি ছাড়া কোন প্রাণীই বেচে থাকতে পারেনা। মানুষ ভালো কিন্তু খারাপ মানুষ সবচেয়ে অদম। তেমনি পানি প্রয়োজন তবে সেটা অবশ্যই নিরাপদ হওয়া চাই। তিনি বলেন, নিরাপদ পানির অভাবে এক সময় এদেশের মানুষ সারাবছর কলেরা, ডায়রিয়া আক্রান্ত হত। কিন্তু এই সরকার নিরাপদ পানির অভাবে যাতে কোন মানুষ আর কষ্ট না পায় তার সকল ব্যবস্থাই করছে। নিরাপদ পানির পাশাপাশি স্বাস্থ্য সম্মত ল্যাট্রিন বিতরণ করছে সরকার। এসবের পাশাপাশি দেশের যে সার্বিক উন্নয়ন হচ্ছে তা ইতিহাস যোগ্য। 

এতেই শেষ নয়, উন্নয়ন হচ্ছে আরও হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনার প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা উচিত। তিনি হাওরের উন্নয়নে যতকিছু দরকার সব দিচ্ছেন। কিছুদিনের মধ্যেই সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ শুরু হবে। তাই আসুন ধান্দাবাজ, মুনাফিক, মিথ্যুকদের কথা না শুনে দেশের উন্নয়নে সবাই ঐক্যবদ্ধ হই।      

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেবুন নাহার শাম্মীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নূর হোসেনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো: আব্দুল আহাদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন নবী, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দোলন রানী তালুকদার, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি সৈয়দা শমসাদ বেগম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ স¤পাদক আতাউর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, উপজেলা জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ- স্বাস্থ্য প্রকৌশলী  আব্দুর রব সরকার, শিমুলবাক ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু, পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রশীদ আমিন, পূর্ব পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন, পশ্চিম পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হক, পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক ফয়েজুর রহমান, জেলা কৃষকলীগের সদস্য মাসুক মিয়া ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক স¤পাদক কামরুল ইসলাম শিপন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ স¤পাদক এমরান তালুকদার প্রমুখ।  

আরকে//