ঢাকা, রবিবার   ০৫ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২০ ১৪২৭

মধুখালীতে এনজিও প্রধানের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার           

ফরিদপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১১:০৩ পিএম, ৩ জানুয়ারি ২০২০ শুক্রবার

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার চন্দনা সঞ্চয় ও ঋনদান সমিতির লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) লিপি আক্তারের (৩৫) ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বাগাট ইউনিয়নের ঠাকুরপাড়ার এক আখক্ষেত থেকে লিপি আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

 এ ঘটনায় ওই এনজিও এর ম্যানেজার অজিজুলসহ ২জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এদিকে লিপি আক্তারকে বহনকারী ভ্যানচালক সৌখিন (১৬) এ ঘটনার পর থেকে নিঁখোজ রয়েছে। লিপির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। লিপি আক্তার বাগাট মুন্সি পাড়ার মির্জা শহিদুল ইসলামের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাগাট বাজারে অবস্থিত লিপির এনজিও কার্যালয়ে কাজ শেষে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরেন লিপি আক্তার। বাড়িতে আসার পর তার মোবাইলে একটি কল এলে তিনি পুনরায় বাড়ি থেকে বের হন। গভীর রাত পর্যন্ত লিপি আক্তার বাড়িতে না ফেরায় তার স্বামী মির্জা শহিদুল ইসলাম লিপির মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরে শহিদুল ইসলাম ও পরিবারের সদস্যরা বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি। 

শুক্রবার সকালে স্থানীয়রা একটি আখক্ষেতে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন থানায় গিয়ে লিপি আক্তারের মরদেহ সনাক্ত করে। পুলিশ লাশটি  ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। 

এ ব্যাপারে মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম  বলেন, লিপি আক্তার হত্যাকান্ডের মামলার প্রস্তুতি চলছে। এখনো কোন আসামী আটক করা হয়নি। তবে দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এদিকে, লিপি আক্তারকে বহনকারী ভ্যানচালক সৌখিনের কোন খোঁজ এখনো পাওয়া যায়নি।

আরকে//