ঢাকা, বুধবার   ০১ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ১৭ ১৪২৬

সুনামগঞ্জে বিপন্ন প্রজাতির শকুন উদ্ধার

সিকৃবি সংবাদদাতা 

প্রকাশিত : ০২:১২ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২০ শুক্রবার

সুনামগঞ্জে পৃথিবীর সবচেয়ে বিপন্ন প্রজাতির বাংলা শকুনের দেখা মিলেছে। বৃহস্পতিবার সকালে ছাতক শহরের নুরাল্লাপুর এলাকা থেকে অসুস্থ অবস্থায় শকুনটিকে উদ্ধার করে আনে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) প্রাণীর অধিকার ও জীববৈচিত্র বিষয়ক সংগঠন প্রাধিকার। পরে সিলেট বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে শকুনটি হস্তান্তর করা হয়।

সুনামগঞ্জের বাসিন্দা রাকিব উদ্দিন বাবলু বলেন, ‘নুরাল্লাপুর এলাকার একটি বনে শকুনটিকে পড়ে থাকতে দেখে এটির সঙ্গে খেলা করে স্থানীয় কিছু শিশু-কিশোর। এক পর্যায়ে তারা শকুনটিকে আহত করে ফেলে। পরে স্থানীয় কিছু যুবক মিলে আহত শকুনটি বাসায় নিয়ে আসে। এক সপ্তাহ ধরে পাখিটি আমাদের কাছে ছিল। অসুস্থ থাকায় উড়তে পারছে না। তাছাড়া পাখিটির খাবার সম্পর্কে আমাদের সঠিক ধারনা নেই।’

গত বুধবার Birdslover-2 নামক গ্রপে পাখিটির ছবি প্রকাশ করে মো. মেহেদি হাসান মামুন নামের এক যুবক। ছবিটি প্রাধিকারের সদস্যদের নজরে আসলে তাৎক্ষণিকভাবে যুবকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন তারা। 

বৃহস্পতিবার সকালে প্রাধিকারের রেসকিউ টিমের সদস্য প্রশান্ত দেবনাথ স্মরণ ও কোষাধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম শকুনটি নুরাল্লাপুর গ্রাম থেকে উদ্ধার করে সিলেটে নিয়ে আসেন।

প্রাধিকারের কোষাধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম বলেন, ‘এটি বাংলা শকুন নামে পরিচিত। বর্তমানে পৃথিবীতে এটি সবচেয়ে বিপন্ন প্রজাতির শকুন। শকুনটি ক্ষুধার্ত ও দুর্বল ছিল বলে উড়তে পারছিল না। আপাতত টিলাগড় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে রেখে খাবারসহ অন্যান্য সেবা দেওয়া হচ্ছে। উড়তে সক্ষম হলে শকুনটি অবমুক্ত করা হবে।’

এআই/