ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৬ ১৪২৬

জেনারেল সোলাইমানি হত্যাকাণ্ড নিয়ে ট্রাম্পের নতুন যুক্তি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১৭ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০ রবিবার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প- ফাইল ছবি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প- ফাইল ছবি

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি'র কুদস ফোর্সের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবার নতুন যুক্তি দেখিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ইরানের এ জেনারেল “আমাদের দেশের বিরুদ্ধে বাজে কথা বলছিলেন”। খবর পার্স টুডে’র। 

গত শুক্রবার ফ্লোরিডায় নির্বাচনের তহবিল সংগ্রহের এক অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় এই অজুহাত দেখান ট্রাম্প। এর আগে তিনি দাবি করেছিলেন, জেনারেল সোলাইমানি মার্কিন স্বার্থের ওপর বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু শুক্রবার তহবিল সংগ্রহের অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় ট্রাম্প সে কথা আর বলেননি। 

ইরানের রাষ্ট্রী গণমাধ্যম পাস টুর্ডের দাবি, ট্রাম্পের নতুন এ বক্তব্য একজন জেনারেলকে হত্যার ব্যাপারে কোনো রকমের বৈধতা দেয় না। এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ সামরিক কর্মকর্তাদেরকে হত্যা করা আন্তর্জাতিক আইনের সম্পূর্ণ লঙ্ঘন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং তার প্রশাসনের অন্য কিছু কর্মকর্তা জেনারেল সোলাইমানির পক্ষ থেকে হামলা আসন্ন ছিল বলে যে মন্তব্য করেছিলেন সে ব্যাপারে তারা কিন্তু কোনো তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি।

গত সোমবার মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল এনবিসি জানিয়েছে, জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কয়েকমাস আগে মার্কিন সামরিক বাহিনীকে কর্তৃত্ব দিয়েছিলেন।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন সেনারা সন্ত্রাসী কায়দায় জেনারেল সোলাইমানি এবং ইরাকের পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড আবু মাহদি আল-মুহান্দিসকে হত্যা করে। এর জবাবে ৮ জানুয়ারি ইরানের সামরিক বাহিনী মার্কিন দুটি সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়।

এমএস/