ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ৯ ১৪২৭

ফেসবুকের পোস্টকে কেন্দ্র করে মারধর, শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ০৭:২৪ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বুধবার

ফেসবুকের পোস্টকে কেন্দ্র করে মারধরের পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থী। অজ্ঞান অবস্থায় নোয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। হামলার শিকার সাব মিয়া সোহেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড লাইব্রেরি ম্যানেজম্যান্ট বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী। 

মঙ্গলবার (১১ তারিখ) ফলিত গণিত বিভাগ ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী সাকিবুল হাসান দূর্জয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে সাব মিয়া সোহেলকে ডেকে পাঠায়। সোহেল নীল দীঘী পাড়ে আসলে তার দেয়া স্ট্যাটাসের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। 

এসময় ভুক্তভোগী তার দেয়া স্ট্যাটাসের জন্য ক্ষমা চায়। এসময় সোহেলের কথায় কর্নপাত না করে দুর্জয় তার দলবল নিয়ে সোহেলের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং চরমভাবে হামলা চালায়। 

জানা যায়, ভুক্তভোগী সাব মিয়া সোহেল দুর্জয়ের ও তার গার্লফ্রেন্ডের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোষ্ট করে। এই ছবিকে কেন্দ্র করে সোহেলের উপর ক্ষোভে ফেটে পড়ে দুর্জয় ও তার সঙ্গীরা। 

এসময় দুর্জয়ের গার্লফ্রেন্ড মারিয়াম সিদ্দিকা জেমি সোহেলকে কান ধরিয়ে হাঁটায় এবং চরমভাবে লাঞ্ছনা করে। জানা যায়, জেমি সোহেলের ডিপার্টমেন্টের জুনিয়র শিক্ষার্থী। 

এদিকে জুনিয়র কর্তৃক লাঞ্ছনা সহ্য করতে না পেরে হামলা পরবর্তীতে সোহেল আত্মহত্যা চেষ্টা করলে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে সহপাঠীরা তাকে নোয়াখালী সদর হসপিটালে নিয়ে যায়। এই হামলার ঘটনায় সাকিবুল হাসান দুর্জয়ের সাথে সমাজকর্ম ২০১৮-১৯ বর্ষের সোহান,লিমন ও একই সেশন বাংলা বিভাগের তানভীর মাহতাব সামি। এছাড়া নাম জানা যায়নি এমন আরো ১০ জনের মত উক্ত হামলায় অংশ নেয় বলে সোহেলের সহপাঠিরা জানান। 

জানা যায়, হামলাকারী সকলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাকিব মোশাররফ ধ্রুব'র কয়েকটি গ্রুপের মধ্যে একটি গ্রুপের অনুসারী।

বিভাগীয় সূত্রে জানা যায়,হামলাকারীদের বিচারের দাবীতে সকল ধরনের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করছে বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

হামলার বিষয়ে নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, অামরা লিখিত অভিযোগ পেয়ে সঞ্জয় কুমার মুখার্জিকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং তদন্ত কমিটিকে অাগামী ২ দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য,ঘটনাস্থলে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে হামলাকারীরা সাংবাদিককে হুমকি দেন। 

কেআই/আরকে