ঢাকা, শনিবার   ২৮ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৪ ১৪২৬

ময়লা সংগ্রহকারীর ২৫ হাজার বইয়ের লাইব্রেরি!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:২৬ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বৃহস্পতিবার

হোসে আলবার্তো গুতেরেস পেশায় একজন আবর্জনা সংগ্রহকারী। এ কাজের মধ্য দিয়ে গড়ে তুলেছেন বিশাল এক লাইব্রেরি। ২৫ হাজারের মতো বই এই লাইব্রেরিতে স্থান পেয়েছে। শুধু তাই নয়, ৪৫০টিরও অধিক লাইব্রেরিতে তিনি বই দিয়েছেন।

একজন আবর্জনা সংগ্রহকারী কী ভাবে এত বড় সংগ্রহশালা গড়ে তুললেন? সে বিত্তমান নয়, পৈতৃকভাবে সম্পদশালীও নয়, পেশায় বেতনও পান সামান্য। তবে বইয়ের প্রতি তাঁর ছিল ভালবাসা। যখনই ময়লার ভেতর বই দেখতেন, তুলে নিতে ভুলতেন না। বিখ্যাত লেখক লিও তলস্তয়ের আন্না কারেনিনার মতো বই খুঁজে পেয়েছেন ময়লার মধ্যেই। 

বইয়ের প্রতি মানুষের এমন অবহেলা দেখে ব্যথিত হতেন গুতেরেস। স্বপ্ন দেখলেন লাইব্রেরি গড়ার। তাই ময়লা থেকে কুড়িয়ে পাওয়া বই এক এক করে জমাতে থাকলেন। তার সহকর্মীরাও যখনই ময়লার মধ্যে বই পেতেন, তাও দিয়ে যেতেন তাঁকে। এভাবেই বড় এক লাইব্রেরি গড়ে তুললেন গুতেরেস। 

১৯৯৭ সালে কলম্বিয়াতে একজন আবর্জনা সংগ্রহকারী হিসেবে কাজ শুরু করেন গুতেরেস। এখনও তিনি এই কাজই করে যাচ্ছেন। তিনি মনে করেন, উত্তরাধিকার সূত্রে আমরা পরবর্তী প্রজন্মের জন্য সবচেয়ে মূল্যবান যা রেখে যেতে পারি তা হলো শিক্ষা। আর এই শিক্ষার অন্যতম মাধ্যম হলো বই।

কলম্বিয়ার বোগাটায় প্রত্যন্ত অঞ্চলে গুতেরেস এখন শিক্ষার আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন। সংগৃহীত বইগুলো দিয়ে তিনি একটি কমিউনিটি লাইব্রেরি গড়ে তুলেছেন। ৫৫ বছর বয়সী গুতেরেস সংগৃহীত বই তিনি দান করেন বিভিন্ন লাইব্রেরি, স্কুলে। এখন পর্যন্ত ২৩৫টি স্কুলে বই দিয়েছেন তিনি। গুতেরেস স্বপ্ন দেখেন একদিন গোটা কলম্বিয়াকে বই দিয়ে পরিপূর্ণ করবেন তিনি।

এএইচ/