ঢাকা, সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৭

মার্কিন নাগরিকসহ দুইজনকে ফেরত পাঠাল বাংলাদেশ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৫:১৮ পিএম, ১৭ মার্চ ২০২০ মঙ্গলবার

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে কাঁপছে বিশ্বের অন্তত ১৫২টি দেশ। যেখানে চীন থেকে ইতালি, যুক্তরাষ্ট্র থেকে ইরানে মহামারি আকার ধারণ করেছে। আক্রান্তের তালিকা থেকে বাদ যায়নি দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ বাংলাদেশও।

এমন পরিস্থিতিতে ইউরোপ ও আমেরিকা থেকে আপাতত কোনো প্রবাসী ও ভিন দেশিকে বাংলাদেশে ঢুকতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তারই আলোকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে এক আমেরিকান নাগরিকসহ দুইজনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। 

সোমবার যুক্তরাষ্ট্র ও আইভরিকোস্টের এ দুই নাগরিক বাংলাদেশে ভিসা না নিয়ে আসায় তাদের ঢুকতে দেয়া হয়নি বলে জানান বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল-আহসান। আজ মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি। 

বিমানবন্দরের পরিচালক বলেন, ‘৩১ মার্চ পর্যন্ত অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করেছে সরকার। এখন বাংলাদেশে কাউকে আসতে হলে আগেই ভিসা নিয়ে আসতে হবে। ওই দুই নাগরিক সোমবার ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। তাদের কাছে কোনো ভিসা ছিল না। এ জন্য মঙ্গলবার তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের আর কোনো দেশের যাত্রী বাংলাদেশে ঢুকতে পারবে না। সবদেশের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ রাখা হয়েছে। আর করোনায় আক্রান্ত দেশ থেকে কোনো বাংলাদেশি দেশে ফিরলে তাকে নিজ উদ্যোগেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।’

বিমানবন্ধরের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে বিমানবন্দরের এই পরিচালক বলেন, ‘বিমানবন্দরের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো আছে। নতুন করে আর কোনো থার্মাল স্ক্যানার নষ্ট হয়নি। সবগুলোই সচল আছে। বাকি নিরাপত্তা ব্যবস্থাও সন্তোষকজনক।’ 

নিষেধাজ্ঞার পরও সোমবার রাতে কাতারের ফ্লাইট দেশে অবতরণের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ফ্লাইটটিকে কঠোরভাবে বলে দিয়েছিলাম যে তারা ইউরোপের যাত্রী নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবে না। এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলকেও বলে দিয়েছিলাম ফ্লাইটটিকে অবতরণের অনুমতি না দিয়ে কাতারে ফিরিয়ে দিতে। তবে পরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের জানানো হলো যে, মানবিক কারণে তারা ফ্লাইটটিকে বাংলাদেশে আসার অনুমতি দিয়েছে।’

এআই/এসি